🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ রবিবার, ২০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৫ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

করোনাভাইরাস: বিশ্বে শনাক্ত রোগী ছাড়াল ২ কোটি


❏ মঙ্গলবার, আগস্ট ১১, ২০২০ ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরুর সাত মাসের মাথায় বিশ্বে এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এক কোটি ছাড়িয়েছিল, তার সঙ্গে আরও এক কোটি যুক্ত হল দেড় মাসেরও কম সময়ের মধ্যে।

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাত্ত অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার সকালে বিশ্বে মোট শনাক্ত কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা পৌঁছেছে ২ কোটি ১১ হাজার ১৮৬ জনে। বিশ্বব্যাপী মোট ৭ লাখ ৩৪ হাজার ৬৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

মহামারিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত দেশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ৫০ লাখ ৮৯ হাজার ৪১৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। যা বিশ্বের মোট আক্রান্তের প্রায় এক চতুর্থাংশ। দেশটিতে মারা গেছে ১ লাখ ৬৩ হাজার ৪২৫ জন।

করোনায় বিশ্বের ক্ষতিগ্রস্থ দেশসমূহের মধ্যে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল। দেশটিতে ৩০ লাখ ৫৭ হাজার ৪৭০ জন কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন এবং ভাইরাসে মারা এক লাখ ১ হাজার ৭৫২ জন।

আর করোনার বেশি আক্রান্তের দেশের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশর প্রতিবেশী ১২৫ কোটি জনসংখ্যার দেশ ভারত। দেশটিতে ইতোমধ্যে ২২ লাখের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

রাশিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, মেক্সিকো এবং পেরুতে এখন পর্যন্ত চার লাখের বেশি করে মানুষ করোনায় আক্রান্ত। এদিকে, করোনায় মেক্সিকো, যুক্তরাজ্য, ভারত, ইতালি এবং ফ্রান্স প্রতিটি দেশে ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

বিশ্বে গত কয়েক মাস ধরে করোনার নতুন সংক্রমণ তীব্র আকার ধারণ করেছে। ২৮ জুন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ১ কোটি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়। এর মাত্র ৪৩ দিন পরে এ সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছে।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ২১৩টিরও বেশি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

বাংলাদেশ পরিস্থিতি

করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট ৩ হাজার ৪৭১ জন কোভিড রোগী মারা গেলেন। এই সময়ে ২ হাজার ৯৯৬ জন শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত হলেন ২ লাখ ৬৩ হাজার ৫০৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৫৩৫ জন এবং মোট সুস্থ ১ লাখ ৫১ হাজার ৯৭২ জন।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) দুপুরে করোনাভাইরাসের বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।