সংবাদ শিরোনাম
টাঙ্গাইলে এক উপজেলার ইউপি সদস্য, অন্য উপজেলায় পৌর যুবদলের আহবায়ক | ঠাকুরগাঁও সীমান্তে বিএসএফের ধাওয়া খেয়ে নদীতে লাফ, বাংলাদেশির মৃত্যু | পঞ্চগড়ে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা | ইন্টারনেটে ‘গোপন ছবি’ প্রকাশের হুমকি দিয়ে নারীদের ব্ল্যাকমেইল, যুবক গ্রেফতার | এক নজরে আল্লামা শফীর জীবনী | তিন মাস পর মিয়ানমার থেকে এলো ৩০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ | নালিতাবাড়ীতে নিখোঁজের দুইদিন পর যুবকের মরদেহ উদ্ধার | বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে যাওয়ায় প্রেমিকাকে মারপিট! | রংপুরে গাঁজা ও ফেন্সিডিলসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার | মানুষকে বিষমুক্ত শাকসবজি খাওয়াতে চায় চরফ্যাসনের চাষিরা |
  • আজ ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

যশোর কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে দুদলের সংঘর্ষে নিহত ৩

১২:০৭ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, আগস্ট ১৪, ২০২০ খুলনা
zoassa

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ যশোর কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে দুই দল কিশোরের মধ্যে সংঘর্ষে তিন কিশোর নিহত হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছে আরো অন্তত পাঁচ কিশোর। বৃহস্পতিবার বিকালে কেন্দ্রের অভ্যন্তরে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নিহতদের মৃতদেহ যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিহতরা হল, বগুড়ার শিবগঞ্জের তালিবপুর পূর্বপাড়ার নান্নু প্রামাণিকের ছেলে নাঈম হোসেন (১৭), খুলনার দৌলতপুরের রোজা মিয়ার ছেলে পারভেজ হাসান রাব্বি (১৮) ও বগুড়ার শেরপুর উপজেলার মহিপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে রাসেল ওরফে সুজন (১৮)। এর মধ্যে নাইম হোসেন ধর্ষণ এবং পারভেজ হত্যা মামলায় উন্নয়ন কেন্দ্রে অন্তরীণ ছিল।

প্রতক্ষ্যদর্শী সূত্রে জানা গেছে, তিন দফায় তিনটি লাশ হাসপাতালে নিয়ে আসে কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের লোকজন। প্রথমে সন্ধ্যা ৬টা ৩৮ মিনিটে হাসপাতালে আনা হয় নাইম হোসেনের লাশ। এরপর পৌনে ৮টার দিকে আনা হয় পারভেজ হাসানের লাশ, তারপর ৮টার দিকে আনা হয় রাসেলের লাশ। তবে প্রতিবারই হাসপাতালে লাশ রেখে কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের লোকজন হাসপাতাল ছেড়ে চলে যান। ৩ নিবাসির শরীরেই আঘাতের চিহ্ন আছে বলে প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানিয়েছেন।

জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. অমিয় দাস জানান হাসপাতালে আনার আগে তাদের মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট আসার পর বিস্তারিত জানা যাবে।

কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের এক কর্মকর্তা জানান, ‘বিকেলে দুই দল কিশোর লাঠিসোটা নিয়ে মারামারিতে জড়ায়। এ সময় তিন কিশোর নিহত হয়। কয়েকজন আহত হয়। তাদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।‘