সংবাদ শিরোনাম

সারাদেশে পৃথক দুর্ঘটনায় নিহত ২০ | ঠাকুরগাঁওয়ে পরিত্যক্ত ঘরে আগুন লাগিয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর অভিযোগ! | অসহায় মানুষের আশ্রয়স্থল নগরকান্দা ব্লাড ডোনার্স ক্লাব | কৃষি বিক্ষোভে ট্রুডোর সমর্থন, কানাডার রাষ্ট্রদূত তলব করে ভারতের প্রতিবাদ | প্রতি শুক্রবার উইঘুর মুসলিমদের শূকর খেতে বাধ্য করে চীন | ছাত্রকে বলাৎকার, মাদ্রাসা শিক্ষককে গণধোলাইয়ের পর পুলিশে দিলেন জনতা | মধ্যরাত থেকে করোনা নেগেটিভ সনদ ছাড়া দেশে প্রবেশ নিষেধ | বিদায় নেয়ার আগে ইরানের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা ট্রাম্প প্রশাসনের | প্রথম ধাপে ভাসানচরে পৌঁছেছেন ১৬৪২ রোহিঙ্গা | মৌলবাদী গোষ্ঠীগুলো যুগে যুগে দেশকে পিছিয়ে দেওয়ার অপচেষ্টা চালিয়েছে: তথ্যমন্ত্রী |

  • আজ ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

অবশেষে উন্মুক্ত হলো কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত

⏱ ১১:৩০ পূর্বাহ্ন | সোমবার, আগস্ট ১৭, ২০২০ 📂 ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর, কক্সবাজার- করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে দীর্ঘ পাঁচ মাস বন্ধ থাকার পর অবশেষে আনুষ্ঠানিকভাবে খুললো বিশ্বের দীর্ঘতম কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত।

আজ সোমবার (১৭ আগস্ট) সমুদ্র সৈকতসহ কক্সবাজার পৌরসভার ভেতরে অবস্থিত বিনোদনকেন্দ্রগুলো খুলেছে। পাশাপাশি সীমিত আকারে পরীক্ষামূলকভাবে খুলে দেয়া হয়েছে কক্সবাজারের হোটেল মোটেল, কটেজ এবং রেস্টুরেন্টসহ পর্যটন এলাকার বিনোদন কেন্দ্রগুলো।

গত ১৮ মার্চ থেকে সমুদ্র সৈকতসহ কক্সবাজারের পর্যটন শিল্পনির্ভর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ ঘোষণা করা হয়। পরবর্তী সময়ে কক্সবাজার জেলাকে লকডাউন, শহরকে রেডজোন ঘোষণা করে সব ধরনের দোকানপাট, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানও বন্ধ ঘোষণা করা হয়। দীর্ঘ সাড়ে তিন মাস পর গত ১ জুলাই থেকে লকডাউন শিথিল করে কক্সবাজার শহরের দোকানপাট খুলে দেওয়া হলেও আনুষ্ঠানিকভাবে খুলে দেওয়া হয়নি পর্যটন কেন্দ্রগুলো।

তবে গত সপ্তাহে জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় সোমবার থেকে পর্যটকদের জন্য সীমিত পরিসরে কক্সবাজার পৌরসভার দর্শনীয় স্থানগুলো খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

জেলা প্রশাসক জানান, স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী ১৩টি শর্তে খুলে দেওয়া হচ্ছে শহরের হোটেল-মোটেলগুলো। ফলে আজ থেকে কক্সবাজার শহরের সেই চিরচেনা দৃশ্য ফিরে আসবে বলে আশা করা হচ্ছে।

কক্সবাজারে টুরিস্ট পুলিশের এসপি জিল্লুর রহমান জানিয়েছেন- পর্যটক এবং পর্যটন শিল্প সংশ্লিষ্টদের সার্বিক নিরাপত্তায় পুলিশ বাহিনী প্রস্তত রয়েছে। সংশ্লিষ্ট সকলে যেন স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সৈকতসহ সকল স্থানে বিচরণ করে তা কড়াকড়ি ভাবে লক্ষ্য রাখা হবে।