জন্মদিনে হাসপাতালে ভর্তি ফারুক

৪:৩৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, আগস্ট ১৮, ২০২০ বিনোদন
faruk

বিনোদন ডেস্কঃ আজ (১৮ আগস্ট) চিত্রনায়ক ও সংসদ সদস্য আকবর হোসেন পাঠান ফারুকের জন্মদিন। তবে বিশেষ এ দিনটি ভালো যাচ্ছে না তার। শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে তাকে। রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। শরীরে ভীষণ জ্বর।

নিজের অসুস্থতা নিয়ে ফারুক বলেন, ‘প্রচণ্ড জ্বর নিয়ে গত রোববার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছি। দুইবার করোনা টেস্ট করা হয়েছে। দু’বারই নেগেটিভ এসেছে। কিন্তু জ্বরটা কোনোভাবেই কমছে না। শরীরটা এখনো গরম। তবে আগের তুলনায় এখন কিছুটা ভালো লাগছে। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।’

জন্মদিন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘করোনাকালীন এই সময়ে তো কিছু করার নেই। তাছাড়া আমি কখনো নিজের জন্মদিন পালন করি না। এই মাসে সপরিবারে বঙ্গবন্ধুকে হত্যাকরা হয়েছে। মহান এই মানুষটিকে যে মাসে হারিয়েছি, সে মাসে আনন্দ-উল্লাস করা, আমার মনও টানে না। তাই ৭৫’র ১৫ আগস্টের পর থেকে আমি জন্মদিন পালন করি না।’

প্রায় পাঁচ দশক ধরে বড় পর্দা মাতিয়েছেন ফারুক। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে ঢাকা-১৭ আসনে প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

১৯৪৮ সালের ১৮ আগস্ট সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন চিত্রনায়ক ফারুক। ১৯৭১ সালে এইচ আকবর পরিচালিত ‘জলছবি’তে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে বাংলা চলচ্চিত্রে ফারুকের অত্মপ্রকাশ ঘটে। ১৯৭৩ সালে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র খান আতাউর রহমানের পরিচালনায় ‘আবার তোরা মানুষ হ’ ও ১৯৭৪ সালে নারায়ণ ঘোষ মিতার আলোর মিছিল এ দুটি সিনেমায় পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি।

১৯৭৫ সালে তার অভিনীত ‘সুজন সখী’ ও ‘লাঠিয়াল’ সিনেমা দুটি ব্যাপক ব্যবসা সফল হয়। ওই বছর ‘লাঠিয়াল’র জন্য তিনি সেরা-পার্শ্ব অভিনেতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। ১৯৭৬ সালে ‘সূর্যগ্রহণ’ ও ‘নয়নমনি’, ১৯৭৮ সালে শহীদুল্লাহ কায়সারের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত আব্দুল্লাহ আল মামুনের ‘সারেং বৌ’, আমজাদ হোসেনের ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’সহ বেশকিছু সিনেমায় চিত্রনায়ক ফারুকের অভিনয়ন প্রশংসিত হয়।

ভক্ত-শুভাকাঙ্ক্ষীরা তাকে ভালোবেসে মিয়া ভাই বলে ডাকেন।