শিক্ষার্থীদের নোবেল পুরস্কার খ্যাত ‘হাল্ট প্রাইজ’ শুরু হচ্ছে সেপ্টেম্বরে

১০:০৩ অপরাহ্ণ | বুধবার, আগস্ট ১৯, ২০২০ শিক্ষাঙ্গন
LOGO

হাবিবুর রনি, বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি: ‘হাল্ট প্রাইজ’কে বলা হয় বিশ্বের সবচেয়ে বড় ব্যবসায় উদ্যোগ প্রতিযোগিতা। যৌথভাবে যার আয়োজক জাতিসংঘ ও বিল ক্লিনটন ফাউন্ডেশন। যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম হাফিংটন পোস্ট এই প্রতিযোগিতার নাম দিয়েছে ‘শিক্ষার্থীদের নোবেল পুরস্কার’।

প্রতিবছর সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনের আহ্বানে বহু শিক্ষার্থী একটি নির্দিষ্ট সমস্যার সমাধান করতে ঝাঁপিয়ে পড়ে এই প্রতিযোগিতার সুবাদে। সমস্যার সমাধান ও সেই সমাধান থেকে ব্যবসার সুযোগ তৈরি করার জন্য পুরস্কার হিসেবে বিজয়ী দলকে দেওয়া হয় ১ মিলিয়ন ইউএস ডলার (সাড়ে ৮ কোটি টাকা)।

টানা দ্বিতীয়বারের মতো বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) অনুষ্ঠিত হবে এবছরের ‘হাল্ট প্রাইজ’ প্রতিযোগিতার ক্যাম্পাস পর্ব। আগামী সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়ে প্রতিযোগিতাটি চলবে ডিসেম্বর পর্যন্ত। গত ১৩ আগস্ট বাকৃবির বিভিন্ন অনুষদের শিক্ষার্থীদের মধ্যে থেকে মোট ৪০ জন শিক্ষার্থীকে নির্বাচিত করা হয়েছে ২০২০-২১ কার্যবছরের নতুন কমিটির জন্য। নির্বাচিত কমিটির সদস্যগণ এ প্রতিযোগিতার সকল কার্যক্রম পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন। বাকৃবির কৃষি অনুষদের শিক্ষার্থী তিয়াস সাহা রয়েছেন প্রতিযোগিতার ক্যাম্পাস ডিরেক্টর হিসেবে। একই অনুষদের শিক্ষার্থী মো. রেদোয়ান ইসলাম রাফি রয়েছেন ডেপুটি ক্যাম্পাস ডিরেক্টর হিসেবে। ছয় সদস্য নিয়ে করা ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সেকশনের প্রধান ইভেন্ট ম্যানেজার হিসেবে রয়েছেন জাহিদ আবরার হিমেল।

এছাড়াও পাঁচ সদস্য নিয়ে করা পাবলিকেশন সেকশনের প্রধান পাবলিশার্সের দায়িত্বে রয়েছেন আতিকুর রহমান বাঁধন ও হাসিবুল হাসান দূর্জয়। আট সদস্য নিয়ে করা টিম, জাজ ও স্পিকার ম্যানেজমেন্ট সেকশনের প্রধান দায়িত্বে রয়েছেন এনামুল হক মনি। তিন সদস্য নিয়ে করা ডিজাইন ও ইনফোগ্রাফিক্স সেকশনের প্রধান হিসেবে রয়েছেন আশিকুর রহমান হিমেল। এছাড়াও ফিন্যান্স ও লজিস্টিক সেকশনে রয়েছেন ৪ জন সদস্য এবং ব্র্যান্ডিং ও প্রমোশন সেকশনে রয়েছেন ৫ জন সদস্য।

প্রতিযোগিতার কার্যক্রম সম্পর্কে ক্যাম্পাস ডিরেক্টরের দায়িত্বে থাকা শিক্ষার্থী তিয়াস সাহা বলেন, চলতি মাস থেকে হাল্ট প্রাইজের বিভিন্ন ট্রেনিং সেশন, সেমিনার, কর্মশালা, সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধির কার্যক্রম পরিচালিত হবে। তবে করোনার কারণে ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় এসব কিছু অনলাইনে আয়োজন করা হবে। পরবর্তী মাস থেকে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতার ক্যাম্পাস রাউন্ডের আয়োজন করা হবে।