• আজ ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • f

ইসরাইল-আমিরাত চুক্তি নিয়ে যা বলল সৌদি আরব

⏱ ১১:১০ অপরাহ্ন | বুধবার, আগস্ট ১৯, ২০২০ 📂 আন্তর্জাতিক
sou

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ দীর্ঘদিন চুপ থাকার পর ইসরাইল-আমিরাত চুক্তি নিয়ে মুখ খুললো সৌদি আরব। দেশটি বলেছে, তারা সংযুক্ত আরব আমিরাতের মতো ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করবে না যতক্ষণ ইসরায়েল ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে কোন শান্তি চুক্তি না করছে।

সৌদি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আদেল আল জুবেইর বলেন, ‘এরকম একটি শান্তি চুক্তির পর সবকিছুই সম্ভব’।

এরপর বুধবার সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ বলেছেন, দীর্ঘদিনের আরব পিস ইনিশিয়েটিভের ভিত্তিতে ইসরায়েলের সঙ্গে শান্তির ব্যাপারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ রয়েছে সৌদি আরব।

তিনি আরও বলেন, ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড দখল করার জন্য ইসরায়েলের যে কোনও ধরনের একতরফা ব্যবস্থা গ্রহণে দ্বিরাষ্ট্রীয় সমাধানকে হেয় করার শামিল বলে মনে করে সৌদি আরব।

গত সপ্তাহে সংযুক্ত আরব আমিরাত হঠাৎ করে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের ঘোষণা দেয়ার পর এই প্রথম এ বিষয়ে সৌদি প্রতিক্রিয়া জানা গেল। ঐ ঘ্টনার পর জল্পনা ছড়িয়ে পড়েছিল যে সৌদি আরবও একই পথ অনুসরণ করে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করতে পারে।

উল্লেখ্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যস্থতায় সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইসরায়েলের সম্পর্ক স্থাপনে রাজি হয়। এ নিয়ে একটি চুক্তি হলেও দখলকৃত পশ্চিম তীরে বসতি স্থাপনের বিষয়টা আপাতত স্থগিত রাখতে সম্মত হয় পশ্চিমা রাষ্ট্র ইসরায়েল।

এনিয়ে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এক সাক্ষাতকারে বলেন, পশ্চিম তীরে বসতি স্থাপনের বিষয়টা আপাতত স্থগিত হয়েছে। তবে এ বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলবে।

এদিকে ইরান ও তুরস্কসহ বিভিন্ন মুসলিম দেশ আরব আমিরাতের এই চুক্তিকে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা বলে মন্তব্য করে।