• আজ ৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নালিতাবাড়ীতে শিক্ষককে ‘রাজাকার বলে কটূক্তি’, প্রতিবাদে মানববন্ধন

১০:২৮ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, আগস্ট ২০, ২০২০ দেশের খবর, ময়মনসিংহ

মিজানুর রহমান, নালিতাবাড়ী (শেরপুর) প্রতিনিধি- শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে জাতীয় শোক দিবসে স্কুল শিক্ষককে রাজাকার বলে কটূক্তি করার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ছাত্র-শিক্ষকরা৷

উপজেলার সন্ন্যাসীভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে সন্ন্যাসীভিটা উচ্চ বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক আবু বক্কর সিদ্দিককে শাহজাহান বাদশা নামে এক ব্যক্তি রাজাকার বলে কটূক্তি ও লাঞ্চিত করার অভিযোগ উঠে৷

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে বুধবার (১৯ আগস্ট) সন্ন্যাসীভিটা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র, শিক্ষক ও অভিভাবক মন্ডলীর সমন্বয়ে নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদের সামনে মানববন্ধন করেছে৷

মানববন্ধনে শিক্ষক আবু বক্কর সিদ্দিক এক লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত শনিবার ১৫ই আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে সন্যাসীভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের অনুরোধে জাতীয় শোক দিবস অনুষ্ঠানে আলোচনা ও দোয়া পরিচালনার জন্য যাই, অনুষ্ঠানের মাঝখানে শাহজাহান বাদশা প্রবেশ করে এবং সবার সামনে আমাকে রাজাকার বলে অপবাদ দেন এবং লাঞ্ছিত ও অশালীন আচরণ করেন৷

এসময় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন নালিতাবাড়ী মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব মোফাজ্জল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম খোকন, সদস্য আঃ হান্নান, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শফিউর রহমান, শিক্ষক রবিউল ইসলাম, কালাচাঁন এবং শিক্ষার্থী শাহরিয়ার সৌরভ ৷

মানববন্ধনে বক্তারা শিক্ষক আবু বক্কর সিদ্দিককে কটূক্তি এবং লাঞ্ছিতের ঘটনায় শাহজাহান বাদশার শাস্তি দাবি করে উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন৷

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সন্ন্যাসীভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহমুদা শিরিন বলেন, আমি শোক দিবসের অনুষ্ঠানে দোয়া পরিচালনার জন্য মৌলভী শিক্ষক সিদ্দিককে বলি। দোয়া অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পর নন অফিসিয়াল ভাবে তাদের মধ্যে কথা হয়েছে।

তবে বিষয়টি অস্বীকার করে শাহজাহান বাদশা সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন, উক্ত শিক্ষকের সাথে আমার কিছু হয়নি। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি নিয়ে আমার তার সাথে দ্বন্ধ ছিল।