🕓 সংবাদ শিরোনাম

মানিকগঞ্জে কৃষিজমির মাটি যাচ্ছে ইটভাটায়, ভাঙছে ফসলি জমির পাড়মঙ্গলবার থেকে ৭ জেলায় কঠোর লকডাউনবিএনপির এমপির কাছে খালেদার চেয়েও পরীমনির গুরুত্ব বেশি: তথ্যমন্ত্রীগৌরনদীতে জালভোট দেওয়া নিয়ে কেন্দ্রে সংঘর্ষ, নিহত ১সুনামগঞ্জে হিন্দুদের বাড়িতে হামলা: প্রধান আসামি সেই স্বাধীনের জামিনভালুকায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় ট্রাকের চালকসহ নিহত ৩বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির দুর্ধর্ষ কাহিনি প্রকাশব্যবসায়ীর হাত-পা বেঁধে মুখে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করেন তারাইউপি নির্বাচন: ভোলায় সংঘর্ষ ও গোলাগুলি, নিহত ১টাঙ্গাইলে একদিনে রেকর্ড ১৬৫ জন করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু ১

  • আজ সোমবার, ৭ আষাঢ়, ১৪২৮ ৷ ২১ জুন, ২০২১ ৷

‘আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করাই ছিল ২১ আগস্টের মূল লক্ষ্য’- আমু

amu
❏ শুক্রবার, আগস্ট ২১, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ “বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের হত্যার মাধ্যমে দলটিকে নিশ্চিহ্ন করাই ছিল ২১ আগস্টের হত্যাকাণ্ডের মূল লক্ষ্য” বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এবং ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমু। শুক্রবার (২১ আগস্ট) এক ভিডিও বার্তায় তিনি এসব কথা বলেন।

আমির হোসেন আমু বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা দেশে না থাকার কারণে ষড়যন্ত্রকারীদের অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করতেই বারবার জননেত্রী শেখ হাসিনাকে টার্গেট করা হচ্ছে হত্যার জন্য।

২১ আগস্টের ভয়াল স্মৃতি স্মরণ করতে গিয়ে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর যেভাবে জেলখানায় জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করে আওয়ামী লীগ ও বাংলাদেশকে নেতৃত্বশূন্য করার অপচেষ্টা করা হয়েছিল ২১ আগস্টেও একই উদ্দেশ্য ছিলে খুনিচক্রের। ওই দিন স্রষ্টার অশেষ রহমতে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা প্রাণে বেঁচে যান।

আমির হোসেন আমু বলেন, বাংলার মানুষ ধর্মপ্রাণ এবং এটি অলি-আউলিয়ার দেশ হওয়ার কারণে দেশের মানুষের সেবা, বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত ও বাংলাদেশকে বিশ্বের বুকে একটি সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে গড়ে তুলতেই মহান সৃষ্টিকর্তা রাব্বুল আলামিন তাকে বাঁচিয়ে রেখেছেন। গণতন্ত্রের অভিযাত্রায় সকল প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে দেশকে এগিয়ে নিতে তিনি শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করেন।

ভিডিও বার্তায় আমির হোসেন আমু ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলায় শহীদ মহিলা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী আইভী রহমানসহ অন্যান্য শহীদদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং এই গ্রেনেড হামলায় হতাহতদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। আর শুকরিয়া আদায় করেন মহান সৃষ্টিকর্তার প্রতি বাঙালির আশা আকাঙ্ক্ষার বাতিঘর, বিশ্বাসের ঠিকানা বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য।