• আজ বুধবার। গ্রীষ্মকাল, ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। সকাল ১০:৪১মিঃ

রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে মুখোমুখি পিএসজি-বায়ার্ন

১২:২৬ অপরাহ্ন | রবিবার, আগস্ট ২৩, ২০২০ খেলা

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক- নিজেদের ক্লাব ইতিহাসে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে উঠেছে পিএসজি। ইউরোপা সেরা হওয়ার পথে ফরাসি চ্যাম্পিয়নদের শেষ বাধা বায়ার্ন মিউনিখ।

জার্মান চ্যাম্পিয়নরা আগেই এই স্বাদ পেলেও এবার তাদের একেবারেই ভিন্ন অবতারে দেখা যাচ্ছে। প্রতিপক্ষের রক্ষণ ছিন্নভিন্ন করে এবার ফাইনালে উঠেছে বাভারিয়ানরা। তবে দুই দলেই আছেন অসংখ্য তারকা ফুটবলার।

জানা যায়, শিরোপা জয়ের মধ্য দিয়ে অভিষেক ফাইনাল চির স্মরণীয় করে রাখতে চায় ফরাসী ক্লাব পিএসজি। তবে ষষ্ঠবারের মতো চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা নিজেদের করে রাখতে চায় দুর্দান্ত ফর্মে থাকা বায়ার্ন মিউনিখ। পর্তুগালের লিসবনে বাংলাদেশ সময় আজ রাত ১টায় শুরু হবে ফাইনাল ম্যাচটি।

চ্যাম্পিয়নস লিগের চলতি মৌসুমে সবচেয়ে বেশি গোল করেছে বায়ার্ন। অন্যদিকে দারুণ রক্ষণাত্মক ভাগ নিয়ে অন্যান্য দলের তুলনায় কম গোল হজম করেছে পিএসজি। বিপরীতমুখী এই দুই কম্বিনেশনের কারণে এবার উপভোগ্য এক চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনাল ম্যাচের আশা করতেই পারেন দর্শকরা।

তারকায় ঠাসা দুই দলই প্রস্তুত ধ্রুপদী এক ফাইনালের জন্য। প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফুটবলের ফাইনালে উঠেছে ডি মারিয়া, নেইমার, এমবাপ্পেদের নিয়ে গড়া পিএসজি। গ্রুপ পর্ব থেকেই দুর্দান্ত নৈপুন্য দেখিয়ে এসেছে দলটি। ভিন্ন দলের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জেতার অভিজ্ঞতা রয়েছে পিএসজি’র।

অন্যদিকে, ১০ বার চ্যাম্পিয়নস লিগ ফুটবলের ফাইনাল খেলে পাঁচবারই ট্রফি জয়ের অভিজ্ঞতা আছে বায়ার্ন মিউনিখের। তাই জয়ের সেই ধারা অব্যহত রাখতে চায় মুলার, জিনব্রি, লেওয়ানডেস্কিদের মতো খেলোয়াড়দের নিয়ে গড়া জার্মান এ ক্লাবটি।

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে অনেকটাই বর্ণহীন ছিল এবারের উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের আসর। সংক্রমণ রোধে অন্যান্য ম্যাচের মতো এই লিগের ফাইনাল ম্যাচটিও অনুষ্ঠিত হচ্ছে দর্শকশূন্য মাঠে।