ওসি প্রদীপসহ ৭ পুলিশ সদস্য আবার রিমান্ডে

৬:০৪ অপরাহ্ণ | সোমবার, আগস্ট ২৪, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর, কক্সবাজার- সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলায় বরখাস্ত ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলী, এসআই নন্দদুলাল রক্ষিতসহ সাত পুলিশ সদস্যের আরও চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আজ সোমবার (২৪ আগস্ট) বিকেল পৌনে ৪টার দিকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহ এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে দকক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার সাত আসামিকে হাজির করে র‌্যাব। তাঁরা হলেন, টেকনাফ থানার বরখাস্ত হওয়া ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ, বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক লিয়াকত আলী, থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নন্দ দুলাল রক্ষিত ও এসআই লিটন মিয়া এবং কনস্টেবল সাফানুর করিম, কামাল হোসেন ও আবদুল্লাহ আল মামুন।

এদিন র‌্যাব আদালতের কাছে আসামিদের পুনরায় সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে। শুনানি শেষে আদালতের বিচারক তামান্না ফারাহ বেলা পৌনে ৪টার দিকে আসামিদের চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে আদালত আসামিদের সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছিলেন। ইতিমধ্যে এসআই লিটন মিয়া, কনস্টেবল সাফানুর করিম, কামাল হোসেন ও আবদুল্লাহ আল মামুনের রিমান্ড শেষ করে র‌্যাব। গত কয়েক দিন তাঁরা জেলা কারাগারে ছিলেন। সোমবার সকালে কারাগার থেকে তাঁদের আদালতে নেওয়া হয়।

আর সাত দিনের রিমান্ড শেষ করে সিনহা হত্যা মামলার প্রধান তিন আসামি ওসি প্রদীপ, লিয়াকত আলী ও নন্দ দুলাল রক্ষিতকেও আদালতে নিয়ে যায় র‌্যাব।

আদালত প্রাঙ্গণে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও র‌্যাবের সহকারী পুলিশ সুপার খাইরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ওসি প্রদীপসহ আসামিরা সিনহা হত্যার গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। আরও তথ্যের জন্য পুনরায় সাত দিন করে রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছিল। আদালত পুলিশের সাত আসামিকে পুনরায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।