সংবাদ শিরোনাম
নারীর দিকে আড়চোখে তাকাবে, এমন কর্মী ছাত্রলীগে নেই: লেখক | মান্দায় আবারো আত্রাই নদীর বাঁধে ভাঙ্গন, নতুন করে বন্যার আশঙ্কা | বরিশালে বেড়েছে অত্মহত্যার প্রবণতা | ধর্ষকের ‘বিশেষ অঙ্গ’ কেটে নিজের সম্ভ্রম বাঁচালেন গৃহবধূ | বরিশালে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ম্যুরাল উদ্বোধন | শেখ হাসিনার জন্মদিনে ১ হাজার এতিমের মাঝে খাবার ও নগদ টাকা উপহার | সিলেটে গণধর্ষণ: অভিযুক্তদের পক্ষে দাঁড়াননি কোনো আইনজীবী | শেরপুরে আ.লীগ নেতার বাসায় নির্যাতিত গৃহকর্মীর পাশে উপজেলা প্রশাসন | গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষকদের ফাঁসির দাবিতে আদালত প্রাঙ্গণে স্লোগান | এমসি কলেজে গণধর্ষণ: আসামিদের পক্ষে দাঁড়াননি কোনো আইনজীবী |
  • আজ ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মিশাকে কাপুরুষ ও মিথ্যাবাদী বললেন ওমর সানি

৬:১১ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, আগস্ট ২৮, ২০২০ বিনোদন
misa

বিনোদন ডেস্কঃ চিত্রনায়ক নিরব ও ইমনের উপস্থাপনায় এক রেডিও অনুষ্ঠানে অভিনেতা মিশা সওদাগরকে ধুয়ে দিলেন ওমর সানি। তিনি মিশাকে কাপুরুষ ও মিথ্যাবাদী বলে উল্লেখ করেছেন।

মিশা সওদাগরকে নিয়ে তিনি বলেন, ‌‘মিশা আমার বন্ধু, তার অনেকগুণ আছে, কিন্তু সে প্রচুর মিথ্যা কথা বলে। কথা কথায় বলে আমি নামাজ পড়ি, হজ করেছি। আরে আমরা কি হজ করিনি, তুই একাই নামাজ পড়িস, হজ করেছিস। তুই একটা কাপুরুষ, কাপুরুষতা কবে ছাড়বি মিশা?’

ওমর সানি এসময় জায়েদ খানের সমালোচনা করে বলেন, ফাজলামির একটা সীমা আছে। এখন শুনলে মনে হয় চলচ্চিত্র সমিতি মানেই জায়েদ খান। নিজে নিজে সিদ্ধান্ত নিয়ে বলে কমিটির সিদ্ধান্ত। এখানে তুই (উপস্থাপকের ইমনের দিকে ইঙ্গিত করে) তো উপস্থিত আছিস, তুই কমিটির মেম্বার। ১৮৪ জনকে যে বাদ দেওয়া হলো, তোর মতামত নেওয়া হয়েছে? ও নিজের সিদ্ধান্ত সবার ওপরে চাপিয়ে দেয়।

জায়েদের উদ্দেশ্যে আরও বলেন, পরকীয়া বা গুঞ্জন সব সময়ই ছিল কিন্তু এই সময়ে চলচ্চিত্রের মেয়েদের নিয়ে এতো কথা শুনতে হয়। চলচ্চিত্রের মেয়েদের নাঙ্গা করে দিল এই ছেলেটা। একে স্যাক (বহিষ্কার) করা উচিৎ।

সানী বলেন, আমার শ্যালিকা ইরিন জামানের সদস্যপদ বাতিল করা হলো। আমি মিশাকে বললাম, ইরিনের ব্যাপারটা দেখতে। সে আমাকে বলে আমি তো জানি না, তুই একটু সেক্রেটারির (জায়েদ খান) সাথে কথা বল। আরে ব্যাটা আমি কেন তোর সেক্রেটারির সাথে বলবো?

ওমর সানি বলেন, মিশা আমাদের ফ্রেন্ড সার্কেলের অথচ একটা সভাপতি পদের জন্য সে কি রকম লালায়িত। আসলে এটা ওর কাছে আশা করি না। ১৮৪ জনকে কেন সদস্যপদ থেকে সরানো হলো এই প্রশ্ন করতে সে নির্বিকার ভাবে বলল আমি জানি না, এই রকম কাপুরুষতা করে সে।