বেলকুচিতে একদিনে ৪ ছাত্রীকে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা করলেন ইউএনও

◷ ৪:১৫ অপরাহ্ন ৷ শনিবার, আগস্ট ২৯, ২০২০ দেশের খবর, রাজশাহী
Ime8888882

উজ্জ্বল অধিকারী, বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি- সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি উপজেলায় একই দিনে চারটি বাল্যবিবাহের আয়োজন বন্ধ করে দেন বেলকুচি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আনিসুর রহমান।

শুক্রবার (২৮ আগস্ট) বিকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে এ বাল্যবিবাহগুলো বন্ধ করা হয়।

প্রথমে বিকাল ৪ টায় বেলকুচি পৌরসভার চালা অফিসপাড়া এলাকায় একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী (১৭), বিকাল ৬টায় ধুকুরিয়া বেড়া ইউনিয়নের খামার উল্লাপাড়া গ্রামে ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী (১২), রাত ৭টায় দৌলতপুর ইউনিয়নের চর নবীপুর গ্রামে দশম শ্রেনীর ছাত্রী (১৫) এবং রাত ১০টায় বেলকুচি সদর ইউনিয়নের বেলকুচি মধ্যপাড়া গ্রামে দশম শ্রেণির ছাত্রী (১৫) এর বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকাল হতে গভীর রাত পর্যন্ত গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে বাল্যবিবাহগুলো বন্ধ করা হয়। চারটি বাল্যবিবাহের তিনটিতে কনে অপ্রাপ্তবয়স্ক ও একটিতে বর ও কনে উভয়ই অপ্রাপ্তবয়স্ক।

বাল্যবিবাহগুলো বন্ধ করে প্রত্যেক প্রযোজ্যক্ষেত্রে কনের বাবা ও বরের বাবার কাছ থেকে কনে ও বর প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ দিবেন না বলে মুচলেকা নেয়া হয় এবং বর ও কনের অভিভাবকদের কাছ থেকে মোট পঞ্চান্ন হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

বাল্যবিবাহগুলো বন্ধে সহযোগিতা করেন বেলকুচি থানার উপপরিদর্শক মোঃ কামরুজ্জামান ও থানা পুলিশের সদস্যবৃন্দ।