পাথরের পরিবর্তে ইট-সুরকি দিয়ে রেললাইন সংস্কার!

৬:৪০ অপরাহ্ণ | শনিবার, আগস্ট ২৯, ২০২০ দেশের খবর, ময়মনসিংহ

আব্দুল মান্নান পল্টন, ময়মনসিংহ ব্যুরো- পাথরের পরিবর্তে নিম্নমানের ইটের সুরকি ও বালু দিয়ে ময়মনসিংহ রেলওয়ে জংশন স্টেশন থেকে কেওয়াটখালী লোকোশেড প্রায় দুই কিলোমিটার রেল পথের সংস্কার কাজ চলছে।

এ নিয়ে ফেসবুক টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়েছে তোলপাড়। জেলার সর্বত্রই বইছে আলোচনা সমালোচনার ঝড়। তবে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ এবং ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান বলছেন যথাযথ প্রক্রিয়া মেনেই রেললাইনে ইটের সুরকি ও বালু দিয়ে সংস্কার কাজ করা হচ্ছে।

সুত্রে জানা যায়, স্টেশন থেকে লোকোশেড পর্যন্ত ২ দশমিক ১ কিলোমিটার রেললাইন সংস্কার কাজের বরাদ্দ হয় সাড়ে ১৭ লাখ টাকা।

রেলওয়ের ময়মনসিংহ অঞ্চলের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী নাজমুল ইসলাম বলেন, যে লাইনে সংস্কার চলছে সেটা দিয়ে মূলত ইঞ্জিন চলে। লাইনটি নিচু হয়ে যাওয়ায় সুরকি ফেলে উঁচু করা হচ্ছে। পানিতে কাঠগুলো যাহাতে পচে না যায় সেজন্য ইটের সুরকি ও বালু দেয়া হচ্ছে।

রেলওয়ের পূর্বাঞ্চলের ভারপ্রাপ্ত মহাব্যবস্থাপক সরদার শাহাদাত হোসেন জানান, পাথরের ধারণ ক্ষমতা আর ইটের ধারণ ক্ষমতা এক নয়। ইটের সুরকি দিয়ে কাজ করার কথা নয়। পাথরের পরিবর্তে ইটের সুরকি ব্যবহার করলে হুমকির আশঙ্কা থাকে। যদি করে থাকে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ময়মনসিংহের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আয়েশা হক বলেন রেলওয়ের সহকারী প্রকৌশলী নাজমুল হাসানকে মোবাইল ফোনে সংস্কার প্রকল্পের কাগজপত্র নিয়ে আসার নির্দেশ দিলেও তিনি আসেননি।

তিনি জানান, রেলওয়ের উপ-সহকারী প্রকৌশলীর কাজে দেখভাল করলেও এ ব্যাপারে কোনো সঠিক তথ্য দিতে পারেননি। এমনকি যে কোনো উন্নয়ন বা সংস্কার প্র্রকল্পের কাজের ধরন নিয়ে সাইনবোর্ড লাগাতে হয়। কিন্তু রেলওয়ের এই সংস্কার কাজে কোনো সাইনবোর্ড নেই।