• আজ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বগুড়ায় মাদকবিরোধী অভিযানে ফেনসিডিল-ইয়াবা-গাঁজাসহ আটক ৮

১২:৩৭ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, আগস্ট ৩০, ২০২০ রাজশাহী
madok

বগুড়া প্রতিনিধি: মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযানে বগুড়ায় একটি চোরাই মোটরসাইকেল, ৭০ বোতল ফেনসিডিল, ১০০ পিস ইয়াবা ও এক কেজি গাঁজাসহ আট মাদক বিক্রেতাকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সদস্যরা। এ সময় মাদক বহনকারী একটি ট্রাকও জব্দ করা হয়েছে।

২৮ আগস্ট শুক্রবার সন্ধ্যায় বগুড়া ডিবি কার্যালয় থেকে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

আটকরা হলেন- বগুড়ার সদর উপজেলার জোবায়ের হোসেনের ছেলে আরিফুর রহমান (৩৮), শিববাটি এলাকার মৃত লোকমান হাকিমের ছেলে আলী আকবর বাদল (৫৬) ও একই এলাকার তোফাজ্জল প্রামাণিকের ছেলে দুলাল প্রামাণিক (৩৮), ফুলবাড়ি দক্ষিণ পাড়া এলাকার দুলু মিয়ার ছেলে রেজাউল করিম (৩২), সারিয়াকান্দি উপজেলার বাড়ইপাড়া এলাকার শাহাদত জামানের ছেলে ফুজায়েল আহমেদ ওরফে জন (৩১), গাবতলী উপজেলার চকরাধিকার এলাকার মৃত আব্দুল বারী বিশুর ছেলে আজিজুল হক (৪০), জয়পুরহাট জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার চক গাদুকার এলাকার জলিল মন্ডলের ছেলে সাইদুল ইসলাম ওরফে শহিদুল (৩৮) এবং দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলার পূর্ব জগন্নাথপুর এলাকার মৃত নসরু হোসেনের ছেলে রবিউল ইসলাম ওরফে বাবু (২৫)।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) বেশ কয়েকটি দল জেলার বিভিন্ন স্থানে মাদকবিরোধী অভিযান চালায়। এর ধারাবাহিকতায় সকালে সদর উপজেলার পুরান বগুড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি চোরাই মোটরসাইকেলসহ ফুজায়েল আহম্মেদ ও আরিফুর রহমানকে আটক করা হয়।

অপরদিকে ডিবির অন্য একটি দল সদর উপজেলার তেলিপকুর মোড় এলাকায় অভিযান চালায়। সেখানে একটি পাথর বোঝাই ট্রাক তল্লাশি করে ট্রাকে থাকা একটি স্কুল ব্যাগের মধ্যে বিশেষ কায়দায় রাখা ৭০ বোতল আমদানী নিষিদ্ধ ফেন্সিডিল উদ্ধার করে। সেই সঙ্গে সাইদুল ইসলাম ও রবিউল ইসলামকে আটক করা হয় এবং মাদক বহনে ব্যবহৃত ট্রাকটি জব্দ করা হয়।

গাবতলী উপজেলার সুখানপুকুর এলাকায় ডিবি পুলিশের আরো একটি দল অভিযান চালিয়ে ১০০ পিস ইয়াবাসহ আজিজুল হককে আটক করে এবং সদর উপজেলার শিববাটি এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১ কেজি গাঁজাসহ আলী আকবর বাদল, দুলাল প্রামাণিক ও রেজাউল করিমকে আটক করে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম আলী সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, আটক হওয়া আটজনের মধ্যে আলী আকবর বাদলের নামে এর আগেও সদর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি এবং ফুজায়েল আহাম্মেদ ওরফে জনের নামে সদর থানায় ১৮৬০ সালের পেনাল কোড আইনে তিনটি মামলা রয়েছে।

তিনি আরও জানান, আটক ওই আটজনের বিরুদ্ধে বগুড়া সদর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।