• আজ ১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘প্রণব মুখার্জি ছিলেন বাংলাদেশের পরীক্ষিত বন্ধু’- অর্থমন্ত্রী

৯:২০ অপরাহ্ণ | সোমবার, আগস্ট ৩১, ২০২০ জাতীয়
ortho

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি, উপমহাদেশের বরেণ্য রাজনীতিক প্রণব মুখার্জির মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

সোমবার এক শোকবার্তায় অর্থমন্ত্রী বলেন, উপমহাদেশের প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ প্রণব মুখার্জি ছিলেন বাংলাদেশের পরীক্ষিত বন্ধু ও সুহৃদ। মহান মুক্তিযুদ্ধে তাঁর অসামান্য অবদানের কথা বাঙালি জাতি চিরকাল গভীর শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা সাথে স্মরণ করবে।

অর্থমন্ত্রী প্রয়াত প্রণব মুখার্জির বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

উল্লেখ্য, ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি সোমবার (৩১ আগস্ট) বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে দিল্লির আর্মি’স রিসার্চ অ্যান্ড রেফারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। তার মৃত্যুতে ভারত সরকার সোমবার থেকে সাত দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেছে।

প্রবীণ এই রাজনীতিবিদ গত ৯ আগস্ট রাতে দিল্লির বাড়িতে বাথরুমে পড়ে গুরুতর আহত হন। পর দিন সকাল থেকে তার স্নায়ুতে কিছু সমস্যা দেখা দেয়। চিকিৎসকদের পরামর্শে দ্রুত ভর্তি করা হয় হাসপাতালে।

এমআরআই করে দেখা গেছে মাথার ভেতর রক্ত জমাট বেঁধে রয়েছে। জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। কিন্তু অস্ত্রোপচারের পর অবস্থার উন্নতি হয়নি। ১৩ আগস্ট থেকে তিনি গভীর কোমায় চলে যান।

প্রণব মুখার্জি দীর্ঘ দিন ধরে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ছিলেন। হাসপাতালে ভর্তির পর ধরা পড়ে তিনি করোনায় আক্রান্ত। এমন অবস্থাতেই ওই দিন রাতে দীর্ঘ অস্ত্রোপচার হয় তার। এর পরেই ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছিল প্রণব মুখার্জিকে।

সন্ধ্যায় বাবার মৃত্যুর সংবাদ জানিয়ে ছেলে অভিজিৎ টুইটে লিখেছেন, বেদনা ভারাক্রান্ত হৃদয়ে সবাইকে জানাচ্ছি— হাসপাতালে টিকিৎসকদের সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা এবং গোটা ভারতের সব মানুষের সবার দোয়া ও প্রার্থনাকে অতিক্রম করে আমার বাবা প্রণব মুখার্জি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। তার পাশে থাকার জন্য আমি সবাইকে ধন্যবাদ জানাই।