সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ৩রা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

অসহায়দের চিকিৎসা সেবা শুরু করলো ভাসমান হাসপাতাল ‘জীবন খেয়া’

৫:১৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১, ২০২০ খুলনা, দেশের খবর

মনিরুল ইসলাম দুলু, মংলা প্রতিনিধি: হাজার রোগীর সেবা করার লক্ষ্য নিয়ে মংলা উপজেলার পশুর নদীতে ভিড়েছে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড ও বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে পরিচালিত ভাসমান হাসপাতাল ‘জীবন খেয়া’।

মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকেই বানিশান্তা এলাকার অসহায় দরিদ্র পরিবারের সদস্যদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিতে কার্যক্রম শুরু করেছে এ ভাসমান হাসপাতাল। অর্ধশতাধিক চিকিৎসক ও স্বেচ্ছাসেবকরা এ চিকিৎসা সেবায় অংশ নিয়েছেন।

১ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত উপকূলীয় ৯ জেলার ২০ টি উপজেলায় বিন্যামূল্যে চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম চালিয়ে যাবে ভাসমান হাসপাতাল ‘জীবন খেয়া’। আর এই কাজে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করবে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড।

মঙ্গলবার সকাল ১১ টার দিকে বানিশান্তা পতিতা পল্লীর প্রতিটি ঝুঁপড়ি ঘরে আলাদা ভাবে রোগীদের সেবা দিচ্ছেন বিদ্যানন্দের মেডিকেল টিমের সদস্যরা। এত বড় আয়োজন দেখে দারুন খুশি পতিতা পল্লীর যৌন কর্মীরা। কাঙ্খিত সেবা পেয়ে স্বেচ্ছাসেককদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তারা।

পশুর নদীতে নোঙর করে থাকা ভাসমান হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায় অস্থায়ী কেবিন, আউটডোর, চিকিৎসকদের আবাসন থেকে শুরু করে বিশাল স্টোর রুম গড়া হয়েছে। অসুস্থ রোগিদের বহন করার জন্য রয়েছে ব্যবস্থা। তাকে সাজানো রয়েছে হাজারো আইটেমের ঔষুধ। সমুদ্রের নোনা জলে টিকে থাকার জন্য রয়েছে টনে টনে পানি, ডাইনিং, কিচেন রুম, বিরামহীন পথ চলতে প্রচুর খাবার রাখা হয়েছে ভাসমান হাসপাতালে। অসুস্থ রোগীদের এখান থেকেই খাবার দেওয়া হয়।

বানিশান্তা পতিতাপল্লীর সভানেত্রী রিজিয়া সুলতানা বলেন, আমরা উপকূলের মানুষ অনেক ঝুঁকি নিয়েই জীবন যাপন করি। অভাবের তাড়নায় ঠিকমত নিজেদের চিকিৎসা করাতে পারিনা। বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন আমাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে এজন্য তাদেরকে আমরা ধন্যবাদ জানাই।

বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন ভাসমান হাসপাতালের এক চিকিৎসক জানান, আমরা অনেকটা ঝুঁকি নিয়েই উপকূলের মানুষের জন্য কাজ করছি। বাংলাদেশ কোস্টগার্ড আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। মাঠ পর্যায়ে কাজ করতে গিয়ে মানুষের অনেক ভালবাসা পেয়েছি। যেটা অনেক আনন্দের।

বিদ্যানন্দের ভাসমান হাসপাতাল বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকেই মংলার জয়মনি এলাকার জেল্লেপল্লী ও স্থানীয়দের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষুধ বিতরণ করবে। মংলা উপজেলায় কার্যক্রম শেষে ওই দিন সন্ধ্যায় মোড়েলগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওনা হবে ‘জীবন খেয়া’।