সংবাদ শিরোনাম

দেশে ফের বাড়ল করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তজন্মনিবন্ধন নিতে এসে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে ধর্ষণের শিকার তরুণী‘হেরে গেলাম তোমার মিথ্যা ভালোবাসার কাছে’ চিরকুট লিখে নার্সের আত্মহত্যাইতালিতে রাজনৈতিক সঙ্কট: আস্থাভোটে বিজয়ী জুসেপ্পে কন্তে, রাতে ভাগ্য নির্ধারণটাঙ্গাইলে জিয়াউর রহমানের ৮৫তম জন্মদিন পালিতমানিকগঞ্জে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলারাস্তায় ঘুরে ঘুরে পোস্টার থেকে ‘আল্লাহ’র নাম সংগ্রহ করেন হোসনে আরাআজকে শপথ গ্রহণ করছি, তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনবো: মির্জা ফখরুলজিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী আজজনগণের সাড়া আছে বলেই পৌরসভায় ৯০ শতাংশ ভোটার উপস্থিতি: কাদের

  • আজ ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘ইউএনওর ওপর হামলাকারী কারা, দ্রুত জানা যাবে’

◷ ৪:৫১ অপরাহ্ন ৷ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ৩, ২০২০ জাতীয়
97089

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের মুখোশ দ্রুত উন্মোচন হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নিজ কক্ষে ইউএনও ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলা নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান। বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের ৩১ ব্যাচের কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার ঘটনার পর বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলনে আসেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ।

ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানম, তিনি বিসিএস ৩১ ব্যাচের কর্মকর্তা। তিনি সেখানে সরকারি কোয়ার্টারে থাকতেন, তার বাবাও সেখানে ছিলেন। তার হাজবেন্ডও পীরগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। তিনি দোতলায় থাকেন। গতকাল রাত প্রায় ৩টার দিকে দোতলার বাথরুমের ভেন্টিলেটর ভেঙে দুজন দুর্বৃত্ত ঢোকে। তাকে হাতুড়ি দিয়ে মাথার পেছনের অংশে আঘাত করে। সে গুরুতর আহত হয়। মাথা ফেটে অনেক রক্তক্ষরণ হয়। এরপর তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ওয়াহিদা খানমকে আরও ভালো চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারযোগে আমরা ঢাকা নিয়ে এসেছি। ইতোমধ্যে তাকে ঢাকার নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সে বেশ সিরিয়াস পর্যায়ের রোগী। তার একটা সাইড প্যারালাইজড মনে হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার (এসপি) এখনও ঘোড়াঘাটের ইউএনওর বাসায় অবস্থান করছেন। আমরা কিছুক্ষণ আগে তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। সেক্ষেত্রে বিষয়টি কী হয়েছে এবং এই দুর্বৃত্তরা কারা, সেই বিষয়ে এসপি সাহেব বললেন, আমরা একটু সময় পেলে আমরা খুব দ্রুত দুর্বৃত্তদের নাম ঠিকানা বের করতে পারব। আমাদের প্রচেষ্টা আছে, আমরা আশাবাদী খুব দ্রুত এটা করতে পারব।’

ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘সেখানে (ইউএনওর বাসভবন) সিসিটিভি ক্যামেরা ছিল। কিন্তু দুর্বৃত্তের মুখে মুখোশ ছিল। সেগুলো দেখে পর্যালোচনা চলছে। সেখানে পুলিশের চৌকস একটি টিম কাজ করছে। তারা আশাবাদী যে, খুব দ্রুত আমাদের জানাতে পারবেন। কারা এই ঘটনাটি ঘটিয়েছেন। আমরা অপেক্ষা করছি।’

এদিকে গভীর রাতে নিজের সরকারি বাসভবনে হামলার শিকার দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমকে গুরুতর অবস্থায় রংপুর মেডিকেল হাসপাতাল থেকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়েছে।

রংপুরের বিভাগীয় কমিশনার আবদুল ওয়হাব জানান, বেলা ১২টা ৪৭ মিনিটে রংপুর ক্যান্টনমেন্ট থেকে একটি হেলিকপ্টার ওয়াহিদা খানমকে নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়।

তিনি বলেন, তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তার উপর হামলার কারণ প্রাথমিকভাবে জানা যায়নি।