ইউএনও’র উপর হামলায় আটক যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীরের কেচ্ছা-কাহিনী

২:২৭ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৪, ২০২০ রংপুর
zubo

শাহ্ আলম শাহী, স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর থেকেঃ দিনাজপুরে ঘোড়াঘাট উপজেলার ইউএনও ওয়াহিদা খানমের উপর হামলার ঘটনায় আটক যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলমের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

ভাইরাল হওয়া ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, ঘোড়াঘাট উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম নেশাগ্রস্থ অবস্থায় টালমাতাল অবস্থায় রয়েছে। স্থানীয় জনতার সামনে আটক জাহাঙ্গীরকে পুলিশ শাসনবানী দিচ্ছেন। তাকে মাদক সেবন আর না করার জন্য বলছেন।

শুধু এটাই নয়, যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম এর আগে সংখ্যবার মাদকসহ পুলিশের হাতে ধরা খেয়েছেন। এ সংক্রান্ত থানায় মামলাও রয়েছে,তার বিরুদ্ধে।

এ সব ঘঁনার প্রতিবাদ করায় এর আগে যুবলীগ নেতা স্থানীয় সংসদ সদস্য শিবলী সাদিকের উপরও হামলা করেছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় ক্ষমতাসীন দলের রাজনৈতিক দলের নেতারা।

ক্ষমতাসীন দলের কেন্দ্রীয় দু’চারজন নেতা এবং পুলিশ প্রশাসনের কতিপয় দূনীর্তিবাজ কর্মকর্তার সাথেও রয়েছে তার ভালো সম্পর্ক। এ কারণে অপরাধ করেও তিনি বারবার ছাড় পেয়ে গেছেন। এমন মন্তব্য ঘোড়াঘাট উপজেলার অসংখ্য প্রতিবাদি মানুষের।

এলাকার বিভিন্ন জনের কোন জমি সংক্রান্ত বিবাদ, চাকুরি প্রদান, দখল, পাচার, মামলা থেকে রেহাই, বিরোধের সমাধান দেখার জন্য কন্ট্রাক (ঠিকা) নেয়ার অভিযোগ রয়েছে এই যুব লীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম ও তার সাঙ্গপাঙ্গদের বিরুদ্ধে।

জাহাঙ্গীর আলম ঘোড়াঘাট উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক।ওই উপজেলার কাছিগাড়ি গ্রামের আবুল কালামের ছেলে জাহাঙ্গীর।

দেশের বর্তমানে আলোচিত ঘোড়াঘাট উপজেলার ইউএনও ওয়াহিদা খানমের উপর হামলার ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে আইন শৃংখলা বাহিনী আজ শুক্রবার ভোরে তাকে আটক করে।