• আজ ১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

হত্যার মামলা না নিয়ে বাদিকে হাজতে প্রেরণের হুমকি ওসির!

৪:২০ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৪, ২০২০ রাজশাহী
raj

ওবায়দুল ইসলাম রবি, রাজশাহী প্রতিনিধিঃ রাজশাহী চারঘাট মডেল থানার ওসি সুমিত কুমার কুন্ডু বিরুদ্ধে বাংলদেশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এবং জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী। মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে এই মামলা না নিয়ে উল্টো ওই “মা” পারুলকে হাজতে ঢোকানোর হুমকি দিয়েছেন থানার ওসি।

লিখিত অভিযোগের মাধ্যমে জানা যায়, জেলার চারঘাট উপজেলার তাতারপুর গ্রামের আরিফার সাথে ১৫ বছর পূর্বে বিয়ে দিয়েছিলেন একই গ্রামের আকবর আলীর ছেলে শাহাবুল ওরফে সবরের। বিয়ের পর থেকেই আরিফার ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেন স্বামী শাহাবুল। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৮ আগস্ট সকালে আরিফা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে গুজব উঠে।

চারঘাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আরিফার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে প্রেরণ করে। ময়নাতদন্ত শেষে ওই দিনই দুপুর আড়াইটার দিকে আরিফার লাশ তার শশুরবাড়ীর লোকজনের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এরপর তড়িঘড়ি করে তার লাশ বিকাল ৫টার মধ্যেই দাফন করা হয়।

রাজশাহী রিপোর্টার্স ইউনিটি (আর আর ইউ) বাদি পারুল উপস্থিত হয়ে তাঁর লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। এসময় বিভিন্ন পত্রিকার সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। বাদি পারুল বলেন, মেয়ের মৃত্যুর ঘটনায় “মা” পারুল চারঘাট থানায় অভিযোগ করতে গেলে থানার ওসি তাকে বলেন, থানায় অভিযোগ করতে এসেছেন কেন।

পরে ওসি মামলা না নিয়ে বাদি পারুলকে থানা হাজতে ঢোকানোর হুমকি দেন। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে অভিযুক্ত শাহাবুলসহ জড়িত অন্যদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তিনি।

এবিষয়ে জানতে চাইলে চারঘাট থানার ওসি গনমাধ্যমকে বলেন, ওয়ারেন্ট অফিসার এসআই ইকবালের সাথে যোগাযোগ করুন বলেই ফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেন। তবে এসআই ইকবাল জানান, সাহাবুলের বিরুদ্ধে দুইটি ওয়ারেন্ট আছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।