সংবাদ শিরোনাম
‘বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক বর্তমানে এক অনন্য উচ্চতায়’- এলজিআরডি মন্ত্রী | আজ পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী (সা.) | সরকারি এ্যাম্বুলেন্স চালকের হাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা লাঞ্ছিত! | চট্টগ্রামে সাংবাদিক গোলাম সরওয়ার নিখোঁজ, থানায় জিডি | দেশের তথ্য দেশে রাখতে আইন করার কথা ভাবছে সরকার: প্রতিমন্ত্রী পলক | জবিতে হাজী সেলিমের দখলে থাকা তিব্বত হল সহ সকল হল উদ্ধারের দাবি | ১৫ লাখ টাকা যৌতুক না দেওয়ায় স্ত্রীকে নির্যাতন, থানায় অভিযোগ! | মহানবী (সাঃ) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে শেরপুরে মানববন্ধন | কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগে যুবককে হত্যার পরে লাশ পুড়িয়ে দিলো জনতা! | বিশ্ব মুসলিম নেতাদের ইমরান খানের চিঠি |
  • আজ ১৪ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চিকিৎসকদের সুশান্ত জানিয়েছিলেন ‘বেঁচে থাকার ইচ্ছা নেই’

১০:৪৭ পূর্বাহ্ন | শনিবার, সেপ্টেম্বর ৫, ২০২০ বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক- বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে এবার নতুন তথ্য দিলেন চিকিৎসকরা। মুম্বাই পুলিশকে দেয়া সুশান্তের দুই চিকিৎসকের কথায় চাঞ্চল্য আরও বাড়ছে। সুশান্তের চিকিৎসা করতেন, এমন দুজন চিকিৎসক জানিয়েছেন, সুশান্ত ‘বাইপোলার ডিজ-অর্ডারে’ ভুগছিলেন। সঙ্গে ছিল অসম্ভব দুশ্চিন্তা-অনিদ্রাসহ একগুচ্ছ মানসিক অসুখ।

এর আগে মুম্বাই পুলিশকে দেয়া ভাষ্যে সুশান্তের দুই চিকিৎসকই জানিয়েছিলেন, সুশান্ত নাকি ওষুধ নেয়া বন্ধ করে দিয়েছিলেন। এক চিকিৎসকের ভাষ্য অনুযায়ী, সুশান্তের মনে হতো তার এই সমস্যার সমাধান কোনো দিনই হবে না। আর সে জন্য সবচেয়ে বেশি ঝামেলা পোয়াতে হবে তার পরিবারকে।

ওই চিকিৎসক জানান, গত বছর নভেম্বরে সুশান্ত তাকে বলেছিলেন, আর নাকি বেঁচে থাকার ইচ্ছাই নেই তার। যতবার সুশান্ত তার কাছে এসেছিলেন ততবারই নাকি সঙ্গে থাকতেন রিয়া।

অপর চিকিৎসকের ভাষ্য থেকে জানা যায়, ২০ বছর বয়স থেকে নানা মানসিক সমস্যার শিকার ছিলেন সুশান্ত। তার কথায়, সুশান্ত তার রোগ সম্পর্কে যথেষ্ট ওয়াকিবহাল থাকলেও নিয়মিত ওষুধ নিচ্ছিলেন না। চার-পাঁচ দিন না ঘুমানো, অনেক পরিমাণ টাকা খরচ, তাড়াতাড়ি কথা বলার প্রবণতাসহ নানা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছিলেন সুশান্ত।

এদিকে বৃহস্পতিবারও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর বাবাকে ডেকে পাঠিয়েছিল সিবিআই। এদিন সুশান্তের দুই পরিচারক নীরজ এবং কেশবকে জেরার জন্য ডাকে সিবিআই। ডাক পড়েছিল সুশান্তের বন্ধু সিদ্ধার্থ পিঠানিরও।

সিবিআই সূত্রে জানা যায়, রিয়ার বাবাকে মেয়ে এবং সুশান্তের সম্পর্কের ব্যাপারে বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় এ দিন। কেন সুশান্তের নম্বর ব্লক করে দিয়েছিলেন রিয়া, তাদের মধ্যে সম্পর্ক কেমন ছিল, এ বিষয়ে ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তীকে বিস্তারিত জেরা করেছে সিবিআই।

এদিকে, সুশান্তের মৃত্যুর ঠিক পাঁচ দিন আগেই আত্মহত্যা করেন সুশান্তের আর এক সাবেকন ম্যানেজার দিশা সালিয়ান। এই খবরে কার্যত ভেঙে পড়েন অভিনেতা। সূত্রের খবর, এর মাঝেই রিয়ার সঙ্গেও ঝামেলা হয় সুশান্তের। একসঙ্গে থাকলেও এরপর বাড়ি ছেড়ে চলে যায় রিয়া। অনুমান তারপরই অতিরিক্ত মাত্রায় মাদক সেবন করতে শুরু করে সুশান্ত। সিবিআই’র তদন্তে একথা স্পষ্ট যে, সুশান্তের সঙ্গেই থাকতেন রিয়া। তার চলে যাওয়ায় কার্যত ভেঙে পড়েন সুশান্ত।

প্রসঙ্গত, সুশান্তের অ্যাকাউন্ট থেকে রিয়ার দিল্লির ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে কোনও টাকা ট্রান্সফারের প্রমাণ পায়নি সিবিআই। পাশাপাশি খুনেরও কোনও প্রমাণ মেলেনি। মাদকের প্রতি আসক্তি, পারিবারিক সমস্য়া এবং রিয়ার চলে যাওয়া সব মিলিয়েই গভীর অবসাদে চলে গিয়েছিল সুশান্ত। একাধিক সমস্যায় জর্জরিত হয়েই সে আত্মহত্যার বেছে নেন বলে অনুমান সিবিআই’র।

মিথিলা মিথিলার পথেই হাঁটছে তার ছোট বোন

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৯, ২০২০

মিথিলা মিথিলাকে মণ্ডপে নিয়ে বিপাকে সৃজিত

রবিবার, অক্টোবর ২৫, ২০২০

গোমূত্র খেয়ে সুস্থ আছেন অক্ষয়!

রবিবার, অক্টোবর ২৫, ২০২০