মসজিদে বিস্ফোরণ: মুয়াজ্জিনের পর মারা গেলেন ইমাম

◷ ৯:৫৪ অপরাহ্ন ৷ শনিবার, সেপ্টেম্বর ৫, ২০২০ ঢাকা
mosque

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকাঃ নারায়ণগঞ্জ সদরের পশ্চিম তল্লা বায়তুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণে আহত ইমাম আবদুল মালেক আনসারী মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন। দুপুরে ওই মসজিদের মুয়াজ্জিন দেলোয়ার হোসেন মারা যান।

শুক্রবার রাতে বাইতুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় ভেতরে থাকা প্রায় ৫০ জন আতঙ্কিত হন। এর মধ্যে তাড়াহুড়ো করে অনেকে বের হয়ে যান। তবে ৩৭ বিস্ফোরণে দগ্ধ হন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার পশ্চিম তল্লার বাইতুছ সালাত জামে মসজিদে শুক্রবার (০৪ সেপ্টেম্বর) এশার নামাজের সময় হঠাৎ বিকট শব্দে মসজিদের কাছের বৈদ্যুতিক ট্রান্সফর্মারে বিস্ফোরণ ঘটে। সঙ্গে সঙ্গে মসজিদের ভেতরে এসির বিস্ফোরণও ঘটে। মুহূর্তে মসজিদের ভেতরে আগুন ধরে যায়। আগুনের ফুলকি ছড়িয়ে পড়লে মুসল্লিরা দগ্ধ হতে থাকেন।

দগ্ধ হন মসজিদের ইমাম মালেক আনসারী ও মুয়াজ্জিন দেলোয়ার হোসেন, ফটো সাংবাদিক নাদিম হোসেনসহ ৪০ জন। আহতদের প্রথমে নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে তাদের ঢাকা মেডিকেলের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। সবশেষ তথ্য অনুযায়ী দগ্ধ ১৮ জন মারা গেছেন।

হাসপাতালে দগ্ধদের দেখতে এসে স্থানীয় প্রশাসনিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সব কিছুই তদন্ত করে দেখা হবে। এ ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটিকে ১০ দিনের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

এদিকে নিহতদের পরিবারকে নগদ ২০ হাজার টাকা করে অনুদান দেয়া ঘোষণা করেছেন নারায়ণগঞ্জের ডিসি মো. জসিম উদ্দিন। অন্যদিকে এতো মানুষের মৃত্যুতে এলাকায় কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে। শনিবার স্থানীয় সব দোকান-পাট বন্ধ রাখা হয়েছে।