সংবাদ শিরোনাম
টাঙ্গাইলে আল্লামা আলাউদ্দিন জিহাদীর মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন | ছাত্রাবাসে গণধর্ষণের ঘটনায় শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ | সিলেটে ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ: অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় ছাত্রলীগের সাইফুরের বিরুদ্ধে মামলা | ধর্ষণে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা সাইফুরের রুম থেকে অস্ত্র উদ্ধার | স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ভাঙা কুটিরে মানবেতর জীবন যাপন করছেন আ.লীগ নেতা বাচ্চু | উইঘুর সংস্কৃতি বিলুপ্ত করতেই হাজার মসজিদ ধ্বংস করে চীন | যে কারণে এই মুহূর্তে সরকার পতনের আন্দোলন করবেন না নুর | টাঙ্গাইলে বন্যায় সড়ক বিভাগের ৬০ কিলোমিটার রাস্তার ক্ষয়ক্ষতি | এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ, ছাত্রলীগের যাদের খুঁজছে পুলিশ | মসজিদে নামাজ পড়তে আসলেই উপহার পাচ্ছে শিশুরা |
  • আজ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সবার কাছে দোয়া চাইলেন মুশফিক

৩:৩৯ অপরাহ্ণ | সোমবার, সেপ্টেম্বর ৭, ২০২০ খেলা

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক- আগেরদিনই জানা গেছে, ক্রিকেটারদের আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি শুরুর আগে করোনা টেস্ট করা হবে সবার। তবে, এ ক্ষেত্রে মিরপুরে এনে নয়, ক্রিকেটারদের বাসায় বাসায় গিয়ে স্যাম্পল নিয়ে আসা হবে।

সে হিসেবে আজ থেকেই করোনা টেস্টের কার্যক্রম শুরু করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ক্রিকেটারদের বাসায় বাসায় গিয়ে করোনা টেস্টের জন্য স্যাম্পল নিয়ে আসছে।

তারই অংশ হিসেবে বিসিবির চিকিৎসক দল পৌঁছে গেলো মুশফিকুর রহীমের বাসায় এবং মুশফিকের করোনা টেস্টের স্যাম্পল নিয়ে আসলো। কোভিড-১৯ এর পিসিআর এবং আরটি টেস্ট করার জন্য স্যাম্পল দেয়ার সময়ের একটা ছবি তুলে আবার মুশফিক দিয়েছেন ফেসবুকে। তার কাছে এটা পুরোপুরিই নতুন একটা অভিজ্ঞতা।

মুশফিক নিজেই সেটা নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে লিখেছেন। মুশফিক সেই ছবি পোস্ট করে লিখেছেন,‘নিউ এক্সপেরিয়েন্স, প্রে ফর আস (নতুন অভিজ্ঞতা। আমাদের জন্য দোয়া করুন)’।

শ্রীলংকা সফর উপলক্ষে এই মাসের ১৮ তারিখ থেকে খেলোয়াড়দের করোনা টেস্ট করানোর কথা থাকলেও তা করা হয় আজ সোমবার থেকেই। বিসিবির কিছু ‘সাপোর্ট স্টাফ’ আক্রান্ত হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানান বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান।

হঠাৎ করেই কেন করোনা টেস্টের সিদ্ধান্ত? মুঠোফোনে আকরাম খান এ বিষয়ে বলেন, ‘আজ থেকে করাচ্ছি। আমাদের কিছু স্টাফের করোনা হয়েছে তো তাই। আমাদের করার কথা ছিল ১৮ তারিখে। ১৮, ২২ ও ২৭ তারিখে মোট তিনবার টেস্ট করানোর কথা, তার আগে আমরা আরেকবার করে নিচ্ছি। যেহেতু কিছু লোক আক্রান্ত হয়েছে এ কারণে।’

ট্রেইনার ইয়াকুব চৌধুরী ও ক্রিকেটারদের সঙ্গে কাজ করেন এমন কয়েকজন স্টাফ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এরপরে ক্রিকেটারদের অনুশীলন স্থগিত করা হয়। আগামী ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অনুশীলন স্থগিত থাকবে।

করোনা টেস্টের পর খেলোয়াড়রা কী বিসিবির অধীনে থাকবেন? নাকি নিজেদের বাসাতেই নিজ উদ্যোগে? এমন প্রশ্নে আকরাম খান বলেন, ‘সবাই আপাতত বাসায়ই থাকবে। তবে কেউ পজিটিভ হলে যাতে অন্যরা সতর্ক হতে পারে সেজন্যই করা।’