ঘাটাইলে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে বন্ধ

৯:০৬ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২০ ঢাকা
gha

খাদেমুল ইসলাম মামুন, ঘাটাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় শুক্রবার বিকালে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল মাদ্রসা ছাত্রী। উপজেলার ২নং ইউনিয়নের বাইচাল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

জানা যায়, দেউলাবাড়ী ইউনিয়নের চক পাকুটিয়া গ্রামে সাজু মিয়ার ছেলে শাকিলের সাথে ঘাটাইল ইউনিয়নের বাইচাইল গ্রামের ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রসার (৯ম) শ্রেনীর ছাত্রীর সাথে আলোচনার মাধ্যমে বিবাহ ঠিক হয়। শুক্রবার বাইচাইল গ্রামের মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে বিয়ের আয়োজন করে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার অঞ্জন কুমার সরকারও ২নং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হায়দার আলী বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হলে আয়োজকরা পালিয়ে যায়। এ সময় বিয়ে বাড়ির খাবার এতিম খানায় পাঠিয়ে দেয়া হয় এবং বিয়ের প্যান্ডেল ভেঙ্গে দেয়। পরে পরিবারের লোকজন মুচলেকা দিয়ে মেয়ে সাবালিকা না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবে না বলে জানায়।

এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে বাল্যবিবাহ আয়োজন ও সহায়তা করার অপরাধে মোতাহের হোসেনের কন্যা মৌসুমী কে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে মুঠো ফোনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) অঞ্জন কুমার সরকার জানান মেয়েটির মা মৌসুমীর বাসায় কাজ করতেন যার ফলে বাল্যবিবাহ দেয়ার অপরাধে গৃহকর্তাকে জরিমানা করা হয়েছে।