ঠাকুরগাঁওয়ে কাঁচা মরিচের ঝাঁজে ক্রেতারা দিশেহারা

২:৫৮ অপরাহ্ণ | শনিবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২০ দেশের খবর, রংপুর

কামরুল হাসান, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি- প্রতি কেজি কাঁচা মরিচের দাম ১৬০ থেকে ২০০ টাকা! হঠাৎ এমন অবিশ্বাস্য দামে ঠাকুরগাঁও জেলায় বিক্রি হচ্ছে কাঁচা মরিচ।

এ নিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতাদের বাকবিতণ্ডা চলছে কাঁচা বাজারের দোকানে দোকানে। দাম বেড়ে যাওয়ায় অতিষ্ঠ ক্রেতারা। প্রয়োজনের তুলনায় বাজারে কাঁচা মরিচের পরিমাণ অনেক কম থাকায় বাধ্য হয়ে চড়া দামে কিনতে হচ্ছে।

তবে কাঁচা মরিচের দাম কমার আপাতত কোনো লক্ষণ নেই বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা বলেছেন, বন্যার কারণে খেতের মরিচ পচে গেছে। মরিচ নেই। তাই মরিচের বাজারে আগুন লেগেই আছে।

১১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার ঠাকুরগাঁও পৌরসভা গোবিন্দ নগর সরজমিনে কাচা বাজারে ঘুরে দেখা যায়, প্রায় দোকানে কাঁচা মরিচ একটু আমদানি কম হওয়ায় পুরো বাজারে দুই-একজন ব্যবসায়ীর কাছে অল্প মরিচ রয়েছে। এগুলো তারা নিজেদের মতো করে দাম নির্ধারণ করে বিক্রি করছেন। প্রতি ১০০ গ্রাম ২০ থেকে ২৫ টাকা দাম হাঁকছেন। তবে কোথাও কোথাও প্রতি কেজি ২৫০ টাকা দরেও বিক্রি করছেন খুচরা ব্যবসায়ীরা।

শহরের পাশাপাশি এই চিত্র উপজেলার অন্যান্য বাজারেও চলছে বলে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে। লোহাগড়া বাজারেও প্রায় দুই ৫০’ টাকায় কেজি বিক্রি হয়েছে। মরিচের সরবরাহ অস্বাভাবিকভাবে কমে গেছে বলে জানালেন ঠাকুরগাঁও শহরের কাঁচা বাজারের এক ক্ষুদ্রব্যবসায়ী নুরল ইসলাম ।

সিরাজুল ইসলাম নামে আরেক ব্যবসায়ী বলেন, প্রতিদিন আমি ৩০ কেজি মরিচ এনে এখানে বিক্রি করতাম। আজ মরিচ এনেছি ৫ কেজি।

ঠাকুরগাঁও জেলার কালিবাড়ি গৌধলী বাজারে আসা হাজীপাড়া গ্রামের সখিনা জানান, ১০০ গ্রাম কাঁচা মরিচ ২৫ টাকায় কিনেছেন। জুয়েল জানান, আধাপোয়া মরিচ ৩০ টাকায় কিনে বাড়ি ফিরেছন।

পাশে থাকা দোকানদার বলেন, আগে এক কেজি আধা কেজি কিনতেন এমন ক্রেতারা এখন ১০০ গ্রাম করে মরিচ নিয়ে ঘরে ফিরছেন। মাত্র দিন কয়েক আগেও মরিচের কেজি ৭০ টাকা বা ১০০ টাকা ছিল। কিন্তু কিছুদিনের ব্যবধানে এসে লাফিয়ে লাফিয়ে মরিচের দাম বেড়েই চলছে।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুবোদ চন্দ্র রায় বর্তমান মরিচের চাহিদার কথা উল্লেখ করে জানান, কৃষকরা এ সময় যে মরিচ লাগিয়েছিলেন তা অতিবৃষ্টির কারণে নষ্ট হয়ে গেছে। এখন কৃষকরা ভাদ্রা মরিচ ও হাইব্রিড মরিচ চারা করে লাগাচ্ছেন।

তিনি বলেন, এ মাসের শেষের দিকে সম্ভবত আমরা বাজারে দেখতে পাবো। বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার গোয়ালকাড়ি এলাকার কৃষক হাফিজুল, রাজ্জাকসহ আরো অনেকেই এ মরিচ আবাদ করছেন। তবে বর্তমানে নাটোর, রাজশাহী এলাকার মরিচ ঠাকুরগাঁও শহরেও সকল উপজেলার বাজারে দাম বেশি ।