সংবাদ শিরোনাম
মির্জাপুরে টিনশেট নামাতে গিয়ে বিদ্যুতস্পৃষ্টে কাঠমিস্ত্রির মৃত্যু | বগুড়ায় ৭৪ পাউন্ডের কেক কেটে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন | সাতক্ষীরায় আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে জীবিকা নির্বাহের উপকরণ দিল নৌবাহিনী | তারানা হালিমসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগে মামলা | ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ : ‘ধর্ষক’ রবিউলও পাঁচদিনের রিমান্ডে | ধর্ষণ থেকে বাঁচতে স্বামীর বন্ধুর পুরুষাঙ্গ কেটে দিলেন গৃহবধূ | ‘দোয়া চাই, যতদিন বেঁচে আছি সম্মানের সঙ্গে যেন বাঁচতে পারি’ | ‘বাংলাদেশের মানুষ সব ধরনের বাধা অতিক্রম করার সক্ষমতা রাখে’- প্রধানমন্ত্রী | শেখ হাসিনা আমাদের জন্য আলোকবর্তিকা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী | আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে ৬ পদক পেল বাংলাদেশ |
  • আজ ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

গুলশানে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ

৮:৫৭ অপরাহ্ণ | শনিবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২০ ঢাকা
bnpp

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ ঢাকা-১৮ আসনের মনোনয়নকে কেন্দ্র করে শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের হাতাহাতির পর দলটির নেতাকর্মীরা এবার গুলশান কার্যালয়ে গিয়ে মারামারিতে লিপ্ত হয়েছে।

শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকালে বিএনপির মনোনয়ন বোর্ডের সভা চলাকালীন কার্যালয়ের বাইরে ঢাকা-১৮ আসনের প্রার্থী হতে আগ্রহী যুবদল নেতা এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিএনপি নেতা কফিল উদ্দীনের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত কয়েকজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

প্রত্যক্ষ্যদর্শীরা জানান, ঢাকা-১৮ আসনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী যুবদল নেতা এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন ও কফিল উদ্দিনের সমর্থকদের মধ্যে এ ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় একজনের মাথা ফেঁটে যায়।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান গণমাধ্যমকে বলেন, তেমন বড় কিছু হয়নি।

এর আগে ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে যুবদল নেতা এস এম জাহাঙ্গীরকে মনোনয়ন না দিতে দলের হাইকমান্ডের কাছে লিখিত আবেদন জানিয়েছেন বিএনপি সমর্থিত আট কাউন্সিলর প্রার্থী। আবেদনকারীরা ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী ছিলেন।

তারা লিখিতভাবে বলেন, এসএম জাহাঙ্গীর এলাকায় বিএনপির সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা নেই। তিনি আওয়ামী লীগের সাথে আঁতাত করে রাজনীতি করেন। এলাকার নির্যাতিত নেতা-কর্মীরা তার দ্বারাও নানাভাবে হেনস্তা ও নির্যাতনের শিকার। এছাড়া তিনি চাঁদাবাজির সাথে জড়িত।

গুলশান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসান জানিয়েছেন, বিএনপির কার্যালয়ের সামনে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। পরে ওই অফিসের আশপাশে পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ ও র‌্যাব সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। সংঘর্ষের খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।