কঙ্গোয় সোনার খনি ধসে অন্তত ৫০ জনের প্রাণহানি

congg
❏ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ কঙ্গোর পূর্বাঞ্চলে কামিতুগা শহরের কাছে একটি সোনার খনি ধসে অন্তত ৫০ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে বলে স্থানীয় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের এক শীর্ষ কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

কামিতুগা শহরের মেয়র আলেকজান্দ্রে বুন্দ্যা বলেন, নিহতের সঠিক সংখ্যা সম্পর্কে এখনও তারা নিশ্চিত নন।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী জিন নন্দ এএফপিকে বলেন, ‘প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে সেখানে ৫০ জনেরও বেশি মারা গেছেন। আর, জীবিত মাত্র একজনকে পাওয়া গেছে।’

তিনি জানান, প্রচণ্ড বৃষ্টির পর খনি সংলগ্ন নদীটি প্লাবিত হয়। খনির ভেতরে তিনটি টানেলের মধ্যে পানি ঢুকে যায়। ভেতর থেকে লোকেরা বাইরে বেরোনোর চেষ্টা করলেও, উচ্চ চাপে পানি প্রবাহের কারণে বের হওয়ার কোনও উপায় ছিল না।

মুষলধারে বৃষ্টিতে মাটি ধসে যাওয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে মেয়র বুন্দ্যা দাবি করেন। তিনি তার শহরে দুইদিনের শোক ঘোষণা করেছেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া বিভিন্ন ছবি ও ভিডিওতে দুর্ঘটনার পর ধসে পড়া খনিটির সুড়ঙ্গের প্রবেশমুখে কয়েকশ মানুষকে দেখা গেছে; শোনা গেছে অনেকের কান্না ও বিলাপ।

কঙ্গোর বিভিন্ন অননুমোদিত সোনার খনিতে প্রায় দুর্ঘটনার খবর শোনা যায়। গত বছরের অক্টোবরেও দেশটির অব্যবহৃত একটি সোনার খনিতে ভূমিধসের ঘটনায় ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

২০১৯ সালের জুনে একটি তামা ও কোবাল্টের খনিতে ধসের ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল ৪৩ জনের।