চাঁদপুরে আসন্ন শীত মৌসুমের জন্য ১.৩১৫ মেট্রিক টন শাক-সবজির বীজ বরাদ্দ

৯:৪২ অপরাহ্ণ | রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২০ চট্টগ্রাম
bij

এস. এম ইকবাল, চাঁদপুর প্রতিনিধিঃ চাঁদপুর জেলার ৮ উপজেলায় আসন্ন শীত মৌসুমের জন্যে প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় ও কৃষকদের শাক-সবজি চাষাবাদ ও উৎপাদন বৃদ্ধি কল্পে ১.৩১৫ মেট্রিক টন বিভিন্ন ধরনের শাক-সবজির বীজ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ খামারবাড়ি চাঁদপুরে অবস্থিত বীজ বিপনন কেন্দ্রের কর্তব্যরত অতিরিক্ত দায়িত্বে নিয়োজিত সিনিয়র সহকারী পরিচালক খাইরূল বাশার রোববার ১৩ সেপ্টেম্বর দুপুরে এ তথ্য জানান।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, চাঁদপুর কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ খামার বাড়ির মাধ্যমে ৩১৫ কেজি কলমি, করলা, লাল শাক ও পালং ইত্যাদি শাক-সবজির বীজ বর্তমান কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ খামারবাড়ির মাধ্যমে প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় প্রদান করা হয়েছে।

এদিকে চাঁদপুর জেলার ৮ উপজেলায় ১ মেট্রিক টন বিভিন্ন ধরনের শীতকালীন শাক-সবজির বীজ কৃষকদের মধ্যে বিতরণের লক্ষ্যে বরাদ্দ দেয়া হয়। এগুলোর মধ্যে রয়েছে প্যাকেট জাত বেগুন হাইব্রিড বীজ ২৩ কেজি, পালং ১২০ কেজি, লাল শাক ৬২০ কেজি এবং লাউ বীজ ২৩৫ কেজি কৃষি বিভাগের অনুমোদিত ১১৯ জন ডিলারের মাধ্যমে বিতরণের লক্ষ্যে বরাদ্দ এসেছে।

চাঁদপুর বিপণন কেন্দ্রের অতিরিক্ত দায়িত্বে নিয়োজিত সহকারী পরিচালক খায়রূল বাশার বলেন, ‘সরাসরি কৃষকদের কাছে ডিলারের মাধ্যমে এ বীজ বিতরণ করা হবে। কৃষকগণ সরাসরি সরকারি নির্ধারিত মূল্যেও এ কেন্দ্রে এসেও নিতে পারবে। শাক-সবজি উৎপাদনে অনন্য ভূমিকা রাখার জন্য সরকারের কৃষি বিভাগ এ বরাদ্দ প্রদান করেছে।’

শীতকালীন শাক-সবজির প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় যে বীজ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে তা’ কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের মাধ্যমে কৃষকদের মধ্যে বিনামূল্যে বিতরণ করা করা হবে বলে কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের কৃষিবিদ আব্দুল মান্নান জানান।