সংবাদ শিরোনাম
সিঁদ কেটে তুলে নিয়ে শিশু ধর্ষণকারী আলী হোসেন গ্রেফতার | সব মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জন্য সুখবর দিলেন প্রধানমন্ত্রী | হাসপাতালের পরীক্ষার বিল ডাকাতির মতো: মেয়র আতিক | টাঙ্গাইলে খাটের নিচে মিলল ১শ’ বোতল ফেন্সিডিল, গ্রেফতার ১ | কক্সবাজারের ৮ থানার ওসিসহ ২৬৪ জন পুলিশ কর্মকর্তাকে একযোগে বদলি | পঞ্চগড়ে মায়ের সাথে অভিমান করে মাদ্রাসা ছাত্রীর আত্মহত্যা | রাজবাড়ীতে আ.লীগ নেতাকর্মীদের পুলিশি হয়রানির অভিযোগ, প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন | কুড়িগ্রামের অবৈধ কর্ম-কান্ডের দায়ে আ‘লীগ নেতা আটক, গণধোলাই! | কুড়িগ্রামে ফের বন্যা, ধরলার পানি বিপদসীমার ১৯ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত | চোখের পানিতে বার্সাকে বিদায় বললেন সুয়ারেজ |
  • আজ ৯ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বেতন থেকে কেটে নেয়া হলো প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের টাকা!

১০:৫৬ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০ ঢাকা
polic

অন্তু দাস হৃদয়, স্টাফ রিপোটারঃ বেতন থেকে কেটে নেয়া হয়েছে করোনাকালীন সময়ে ক্ষতিগ্রস্থ নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের দেয়া প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের টাকা। বিদ্যালয়ে কর্মরত নন-এমপিও ১৯জন শিক্ষক আর ১১জন কর্মচারীর টাকা কেটে নেয়ার এমন অভিযোগ উঠেছে টাঙ্গাইল পুলিশ লাইনস্ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক আব্দুল কাদের এর বিরুদ্ধে। প্রধানমন্ত্রীর দেয়া অনুদানের টাকা বেতন থেকে কেটে নেয়ায় হতবাক ভুক্তভোগী শিক্ষক-কর্মচারীরা।

জানা যায়, ১৯৯৬ সালে স্থাপিত টাঙ্গাইল পুলিশ লাইনস্ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়। বর্তমানে দুই সিফটে চলমান ও ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণীর এ বিদ্যালয়টির শিক্ষার্থী সংখ্যা ১৭৮৫জন আর শিক্ষক-কর্মচারীর সংখ্যা ৪৯জন। এর মধ্যে নন-এমপিও রয়েছেন ১৯জন শিক্ষক আর ১১জন কর্মচারী।

বিদ্যালয়ে কর্মরত নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের অভিযোগ, করোনাকালীন সময়ে ক্ষতিগ্রস্থ নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের জন্য প্রধানমন্ত্রী দিয়েছেন অনুদান। প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ওই অনুদানে এই বিদ্যালয়ে কর্মরত নন-এমপিও ১৯জন শিক্ষক জনপ্রতি পেয়েছেন পাঁচ হাজার টাকার চেক আর ১১জন কর্মচারীরা পান আড়াই হাজার টাকার চেক। প্রাপ্ত অনুদানের পরিমান এক লাখ বাইশ হাজার পাঁচশ টাকা।

চলতি বছরের ১২জুলাই জনতা ব্যাংক আশেকপুর শাখা টাঙ্গাইল থেকে অনুদানের ওই চেক পান তারা। তবে বিদ্যালয়ের জুলাই মাসে পাওয়া জুনের বেতন থেকে সেই অনুদানের টাকা আবার কেটে নেয়া হয়েছে। করোনাকালীন সময়ে ক্ষতিগ্রস্থ নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের সমস্যা নিরসনে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া অনুদানের টাকা বেতন থেকে কেটে নেয়ায় হতবাক হয়েছেন তারা।

বেতন থেকে অনুদানের টাকা কেটে নেয়ার সত্যতা স্বীকার করেছেন বিদ্যালয়ে নন-এমপিও হিসেবে কর্মরত বাংলা বিভাগের সহকারি শিক্ষক সুলতানা শামীমা নাসরিন, সামাজিক বিজ্ঞান বিভাগের সহকারি শিক্ষক খলিলুর রহমানসহ একাধিক শিক্ষক।

তাদের অভিযোগ, গত (১৯ জুলাই) বিদ্যালয় থেকে পাওয়া জুনের বেতন উত্তোলনের সময় তারা জানতে পারেন প্রধানমন্ত্রীর দেয়া অনুদানের পাঁচ হাজার টাকা মাসিক বেতন থেকে কেটে নেয়া হয়েছে। করোনাকালীন সময়ে ক্ষতিগ্রস্থ নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের জন্য দেয়া প্রধানমন্ত্রীর অনুদান যদিও প্রণোদনা বা ঋণ ছিলনা তবে এরপরও তা কেটে রাখা হয়েছে। বেতন থেকে ওই টাকা কেটে নেয়ার বিষয়ে কয়েকজন শিক্ষক প্রধান শিক্ষককে ফোন দিয়ে জানতে পারেন বিদ্যালয় থেকে তাদের নিয়মিত বেতন দেয়া হয়, তাই তাদের প্রাপ্ত অনুদানের টাকাটা কেটে রাখা হয়েছে।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ে হিসাবরক্ষক কাম কম্পিউটার অপারেটর মো.রুবেল মিয়া বলেন, প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে নন-এমপিও ১৯জন শিক্ষক আর ১১জন কর্মচারীকে দেয়া প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের টাকা বেতন থেকে কেটে রাখা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে টাঙ্গাইল পুলিশ লাইনস্ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আব্দুল কাদের সময়ের কণ্ঠস্বর’কে জানান, করোনাকালীন সময়ে বেতন পাচ্ছেননা এমন নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের জন্য প্রধানমন্ত্রী মানবিক এই অনুদান দিয়েছেন। আমাদের সকল নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারী বিদ্যালয় থেকে নিয়মিত বেতন পাচ্ছেন, এ কারণে বেতন থেকে তাদের ওই অনুদানের টাকা কেটে রাখা হয়েছে।

নিয়মিত বেতন পাওয়া স্বত্তেও নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের তালিকা কেন পাঠানো হয়েছিল এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, কোন কারণ না জানিয়ে বোর্ড থেকে নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের তালিকা চাওয়া হয়েছিল বলেই তালিকাটি পাঠানো হয়। এ ছাড়াও নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন থেকে কেটে রাখা অনুদানের টাকা বিদ্যালয় ফান্ডে জমা রাখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।