মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় তিতাসের ৮ জন গ্রেফতার

◷ ২:৫৬ অপরাহ্ন ৷ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ
Imae 99

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- নারায়ণগঞ্জের পশ্চিম তল্লা এলাকার বায়তুস সালাত জামে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণে ব্যাপক প্রাণহানির ঘটনায় দায়ের করা মামলায় তিতাসের বরখাস্ত আট কর্মকর্তা-কর্মচারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নারায়ণগঞ্জ সিআইডি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান সিআইডির ডিআইজি মাইনুল হাসান।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন— তিতাসের ফতুল্লা অঞ্চলের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সিরাজুল ইসলাম, উপব্যবস্থাপক মাহমুদুর রহমান রাব্বি, সহকারী প্রকৌশলী এসএম হাসান শাহরিয়ার, সহকারী প্রকৌশলী মানিক মিয়া, সিনিয়র সুপারভাইজার মুনিবুর রহমান চৌধুরী, সিনিয়র উন্নয়নকারী আইউব আলী, হেলপার হানিফ মিয়া ও কর্মচারী ইসমাইল প্রধান।

সিআইডির ডিআইজি মাইনুল হাসান বলেন, ‘তদন্তের এ পর্যায়ে আমরা তাদের গ্রেফতার করেছি। তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডের আবেদন করা হবে। ’

এর আগে বায়তুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে গত ৮ সেপ্টেম্বর ওই আট কর্মকর্তা-কর্মচারীকে সাময়িক বরখাস্ত করেছিল তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

প্রসঙ্গত, ৪ সেপ্টেম্বর রাতে এশার নামাজের সময় ফতুল্লার পশ্চিম তল্লা বায়তুস সালাত জামে মসজিদে এ বিস্ফোরণ ঘটে। ফরজ নামাজের মোনাজাত শেষে অনেকে সুন্নত ও অন্য নামাজ পড়ছিলেন। তখন ছয়টি এসি বিস্ফোরিত হয়। এতে ৩৭ জন দগ্ধ হন। তার মধ্যে ৩২ জন মারা গেছেন।

বিস্ফোরণটি তিতাস গ্যাসের বিদ্যমান গ্যাস লাইনের লিকেজজনিত কারণে হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়ার পর বিষয়টি তদন্ত করতে তিতাস গ্যাস ট্রন্সমিশন কোম্পানি একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। গ্যাসের লিকেজ অনুসন্ধানে খোঁড়াখুঁড়ি করেছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। এসময় গ্যাসের পাইপলাইনে ৬টি লিকেজ পাওয়া যায়।