সংবাদ শিরোনাম
মানবদেহ সম্পর্কে কিছু বিস্ময়কর তথ্য যা অনেকেরই অজানা | রোহিঙ্গাদের ৩৪ কোটি ডলার সহায়তা দেবে যুক্তরাষ্ট্র ইইউ ও ব্রিটেন | ঢামেক হাসপাতালকে পাঁচ হাজার শয্যায় উন্নীত করা হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী | ‘রোহিঙ্গাদের যত দ্রুত সম্ভব তাদের নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে’- পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী | নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ মাছ ধরায় ১৮ জেলের কারাদণ্ড! | দেশের মানুষের নিকট জাতীয় পার্টি ছাড়া বিকল্প কোনো পার্টি নেই: জিএম কাদের | বয়স চার হলেই স্কুলে যাবে শিশুরা, ২ বছরের প্রাক-প্রাথমিক | পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে বিক্ষুব্ধ সিলেটের টেলিভিশন সাংবাদিকরা | ‘আজারবাইজানের সহায়তায় সেনা পাঠাতে দ্বিধা করবে না তুরস্ক’ | ‘আসসালামু আলাইকুম’ ও ‘আল্লাহ হাফেজ’ বলাকে জঙ্গিবাদের চর্চা বলায় লিগ্যাল নোটিশ |
  • আজ ৭ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আবারও পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করলো ভারত, ১১ ট্রাক পঁচা পেঁয়াজ নিয়ে বিপাকে ব্যবসায়ীরা

৫:১৩ অপরাহ্ণ | রবিবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০ ফিচার

শাহ্ আলম শাহী, স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর থেকে- দিনাজপুর হিলি স্থলবন্দর দিয়ে শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ১১ ট্রাক পেঁয়াজ প্রবেশের পর আবারো আমদানি বন্ধ রয়েছে।

এদিকে ভারত থেকে শনিবার হিলি স্থলবন্দরে দিয়ে প্রায় আড়াই’শ মেট্রিক টন যে ১১ ট্রাক পেঁয়াজ বাংলাদেশে এসেছে, তা অধিকাংশই পঁচা। এ পঁচা পেঁয়াজ নিয়ে বিপাকে পড়েছেন,ব্যবসায়ীরা।

অতিরিক্ত গরমে পচে যাওয়া এসব পেঁয়াজ আড়তের সামনে পড়ে আছে। বিকট দূগন্ধে ছড়াচ্ছে পেঁয়াজগুলো। এতে শুধু ব্যবসায়ী নয়, পেঁয়াজ পচার গন্ধে অতিষ্ঠ পথচারী ও এলাকাবাসী। তাই, ব্যবসায়ীরা এসব পেঁয়াজ প্রতিবস্তা ৫০ থেকে এক’শ টাকা দরে বিক্রি করে দিচ্ছে। এতে চরম লোকসানের মুখে পড়েছে ব্যবসায়ীরা।

অন্যদিকে ভারতে আটকে থাকা আরো দুইশত টি পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাক নিয়ে বড় ধরনের ক্ষতির আশংকা বাংলাদেশী আমদানি কারক ব্যবসায়ীদের।

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি ও হাকিমপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ বলেছেন, গত ১৩ সেপ্টেম্বর যেসব পেঁয়াজ এলসি করা হয়েছিলো, সেই প্রায় আড়াই’শ মেট্রিক টন ১১ ট্রাক পেঁয়াজ রোববার ভারত হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে পাঠিয়েছে। বাকি আরো প্রায় দুইশত ট্রাক পেঁয়াজ এখনো ভারতের রাস্তায় আটকা পড়ে আছে।

তিনি জানান, প্রতিবছর চাহিদা থাকায় দেশের বাজার স্বাভাবিক রাখতে ২ লক্ষ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি করে থাকেন হিলি আমদানিকারকরা। চলতি বছরের ৬ জুন থেকে ১৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সাড়ে ৩ মাসে পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে ৫৭ হাজার মেট্রিক টন।পেঁয়াজ আমদানি স্বাভাবিক থাকলেও বন্যা ও উৎপাদন সংকট দেখিয়ে হঠাৎ করে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয় ভারত সরকার। বারংবার পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই ভারত সরকারের এমন সিদ্ধান্তে পুঁজি হারাতে বসেছেন হিলির আমদানিকারকরা, ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা।

এদিকে পচা পেঁয়াজ রাস্তার পাশে আড়ৎ গুলোর সামনে রাখায় গন্ধ ছড়াচ্ছে এলাকায়। দূর্ভোগে পথচারীরা আবার কেউ প্রতি বস্তা ৫০ থেকে ১শ টাকা কিনে নিয়ে যাচ্ছে এসব পেঁয়াজ। ভারতের অভ্যন্তরে আটকে থাকা পেঁয়াজ আমদানিসহ ক্ষতি পূরণের দাবি ব্যবসায়ীদের। অন্যদিকে আমদানির ক্ষেত্রে সব ধরনের সহযোগিতা কামনা করছেন তারা।