সংবাদ শিরোনাম
ম্যাকরনকে মুসলিম বিশ্বের কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানাল লিবিয়া | রিফাত হত্যা: অপ্রাপ্ত বয়স্ক ১১ আসামির বিভিন্ন মেয়াদে সাজা | সংসদে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব আনার দাবি চরমোনাই পীরের | প্রতিদিন ১২শ’ লিটার আতর দিয়ে ধোয়া হয় পবিত্র কাবা শরিফ | কোরআন পাঠ চলাকালে পাকিস্তানে মাদ্রাসায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ, নিহত ৭ | বিশ্বনবীকে অবমাননা করায় ক্ষেপেছেন এরদোগান, ফ্রান্স-তুরস্ক বিরোধ তুঙ্গে | আজই কাউন্সিলর পদ থেকে ইরফানকে বরখাস্ত করা হবে: তাজুল ইসলাম | রংপুরে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে গণধর্ষণ: দুই আসামিকে আদালতে নেওয়া হয়েছে | হাজী সেলিমের প্রটোকল অফিসার টাঙ্গাইলে গ্রেফতার | রংপুরে স্কুলছাত্রী গণধর্ষণের ঘটনায় আরও দুইজন গ্রেফতার |
  • আজ ১১ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘চীন-পাকিস্তানকে ঠেকাতে প্রস্তুত ভারতীয় বিমানবাহিনী’

১০:০২ অপরাহ্ন | সোমবার, অক্টোবর ৫, ২০২০ আন্তর্জাতিক
ind

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ চীন ও পাকিস্তানকে ঠেকাতে সীমান্তের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকাগুলোতে নিজেদের উপস্থিতি জোরদার করেছে ভারতীয় বিমানবাহিনী। সোমবার সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এমনটাই জানিয়েছেন ভারতের বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল রাকেশ কুমার সিং ভাদুরিয়া।

ভাদুরিয়া বলেন, ‘আমাদের প্রতিবেশীদের কেউ কেউ যে পরিস্থিতি তৈরি করেছে তার ফলে চারিদিকে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। তবে আমরা একসঙ্গে দুদিকেই যে কোনো লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত রয়েছি। আমি অত্যন্ত আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে একথা বলতে চাই যে, দক্ষতার দিক থেকে আমরা সেরাদের মধ্যে অন্যতম। আমরাদের যোগ্যতা আমাদের পরামর্শদাতাদেরও আশ্চর্য করেছে। আসলে খুব দ্রুত গতিতে নিজেকে বদলে ফেলেছে ভারতীয় বিমানবাহিনী।’

লাদাখে চীনের মোকাবেলা করার জন্য কি ভারতের বিমানবাহিনী যথেষ্ট তৈরি রয়েছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ভারতীয় বিমানবাহিনী খুব ভাল অবস্থায় রয়েছে। আপনারা নিশ্চিন্ত থাকতে পারেন, যে কোনো সংকটের মোকাবেলার জন্য আমরা তৈরি রয়েছি। ভবিষ্যতে যে কোনো ধরনের যুদ্ধজয়ের ক্ষেত্রে ভারতীয় বিমানবাহিনীর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা থাকবে।’

চীনের বিমানবাহিনী থেকে ভারতীয় বিমানবাহিনী কোনো অংশে পিছিয়ে নেই জানিয়ে ভাদুরিয়া বলেন, ‘চীনের থেকে আমরা কোনো অংশেই কম না। চীনের চোখ রাঙানিতে ভারত চুপ করে বসে থাকবে না। সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ এলাকাতে আমাদের সেনা মোতায়েন করা আছে। যদি তেমন কোনো পরিস্থিতি তৈরি হয় উত্তর ও পশ্চিম সীমান্ত এলাকায়, একসঙ্গে তা কড়া হাতে মোকাবেলা করা হবে।’

রাফালের অন্তর্ভুক্তিকরণ ভারতের বিমানবাহিনীকে আরো শক্তিশালী করে তুলেছে উল্লেখ করে এয়ার চিফ মার্শাল বলেন, ‘সম্প্রতি পাঁচটি রাফাল যুদ্ধবিমান হাতে পেয়েছে ভারত। এই টানাপড়েনের মাঝেই লাদাখের আকাশে সেগুলোকে মহড়া দিতেও দেখা গেছে। পূর্ব লাদাখের বিমানঘাঁটিতে মোতায়েন করা হয়েছে সুখোই ৩০এমকেআই, জাগুয়ার এবং মিরাজ ২০০০ যুদ্ধবিমান।’

তবে চীনকে হুঁশিয়ারি দেওয়ার পাশাপাশি আলোচনার বার্তাও দিয়েছেন এয়ার চিফ মার্শাল। বলছেন, ‘লাদাখের পরিস্থিতি প্রমাণ করেছে, আমাদের সশস্ত্র বাহিনী সবসময় প্রস্তুত এবং সতর্ক। এটা একটা উদাহরণ মাত্র। প্রয়োজন হলে বিমানবাহিনীও তার দক্ষতা প্রমাণ করবে। আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চলছে। সফল না হলে যে কোনো পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত রয়েছি আমরা।’

ফরাসি পণ্য বয়কটের ডাক এরদোয়ানের

সোমবার, অক্টোবর ২৬, ২০২০