সংবাদ শিরোনাম
রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় শিক্ষার্থীর মৃত্যু | হাজী সেলিম ও তার ছেলের ‘অবৈধ সম্পদের’ তথ্য সংগ্রহ করছে দুদক | শায়েস্তাগঞ্জে দুই মাদরাসা ছাত্র নিখোঁজের ৪ দিন পর উদ্ধার | পটুয়াখালী র‌্যাবের হাতে দুই সমকামি তরুনী গ্রেপ্তার | মাদারীপুর আড়িয়াল খাঁ নদে সেতু নির্মানের দাবীতে মানববন্ধন | এবার এরদোয়ানের ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করলো ফরাসি ম্যাগাজিন, তীব্র প্রতিবাদ | মুসলিম দেশগুলোতে হস্তক্ষেপ বন্ধ করুন: ফ্রান্সকে রুহানি |  বাউফলে এলাকাবাসীর তোপের মুখে মরিচাধরা এক্সরে মেশিন ফেরত | ইতালিতে করোনায় প্রাণ গেলো আওয়ামী লীগ নেতার | জবিতে ৩০ অক্টোবর থেকে আন্তঃবিভাগ বির্তক প্রতিযোগিতা শুরু |
  • আজ ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মহামারিতেই প্রাণ হারিয়েছিলেন ট্রাম্পের দাদা

১:২২ অপরাহ্ন | বুধবার, অক্টোবর ৭, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ করোনা ভাইরাসে লন্ডভন্ড পুরো পৃথিবী। আর এ ভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। গত কয়েকদিন আগে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও সস্ত্রীক এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তার করোনা আক্রান্তের পর প্রকাশ্যে উঠে এলো এক চাঞ্চল্যকর তথ্য।

তথ্যটি হচ্ছে, ট্রাম্পের দাদাও মহামারিতে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এমনকি তার মৃত্যুও হয়েছিল মহামারিতেই। সেটি ছিল স্প্যানিশ ফ্লু মহামারি। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন’র একটি প্রতিবেদনে এ চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

ডোনাল্ড ট্র্যাম্পের দাদার নাম ছিল ফ্রেডরিক ট্রাম্প। তিনি ১৯১৮ সালে মহামারি স্প্যানিশ ফ্লুতে আক্রান্ত হন। ওই সময় স্প্যানিশ ফ্লুতে বিশ্বে ৫০ কোটি মানুষ আক্রান্ত হন এবং প্রাণ হারান প্রায় ৫ কোটি মানুষ। স্প্যানিশ ফ্লুকে ইনফ্লুয়েঞ্জাও বলা হয়।

জানা গেছে, স্প্যানিশ ফ্লুতে সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা যান যুক্তরাষ্ট্রেই। সেই সময়ও এ ভাইরাসের সঙ্গে লড়তে অনেকটাই দেরি করে ফেলেছিল যুক্তরাষ্ট্র। করোনা মহামারিতে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রে। মৃত্যুতেও যুক্তরাষ্ট্রের ধারেকাছে নেই কোনো দেশ।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ২ লাখ ১৫ হাজার ৮২২ জন। বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এই দেশটিতে। এ নিয়ে ৭৭ লাখ ২২ হাজার ৭৪৬ জন এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন।

এর আগে গত শুক্রবার করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেই। ফার্স্টলেডি মেলানিয়াও একই দিন আক্রান্ত হন। ট্রাম্প এই মহামারিকে গুরুত্ব দেননি। তিনি এটিকে সাধারণ ফ্লু বলে উল্লেখ করতেন। অথচ ট্রাম্প কি জানেন তার উত্তরসূরির মৃত্যু ফ্লুতেই হয়েছিল।

ট্রাম্পের দাদা ফ্রেডরিক ট্রাম্পের জন্ম ১৮৬৯ সালে। তিনি ছিলেন একজন জার্মান-আমেরিকান ব্যবসায়ী। তিনি মাত্র ১৬ বছর বয়সে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। ১৮৯২ সালে তিনি মার্কিন নাগরিকত্ব গ্রহণ করেন। পরে স্প্যানিশ ফ্লুতে মারা যান।