সংবাদ শিরোনাম
সাকিবের নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ায় মাগুরায় আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ | বগুড়ায় ‘এক ঘণ্টার ডিসি’ হলেন পুষ্পা | প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে বগুড়ায় বিক্ষোভ | মির্জাপুরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আইল্যান্ডে ট্রাক, অজ্ঞাত যুবকের মৃত্যু | যমুনায় ইলিশ ধরার অপরাধে ১৫ জেলের কারাদণ্ড, জব্দকৃত মাছ মাদ্রাসায় বিতরণ | রংপুরে সংঘবদ্ধভাবে কিশোরী ধর্ষণে এএসআইয়ের সম্পৃক্ততা আদালতে স্বীকার | অবশেষে ডিবির এএসআই রাহেনুল গ্রেফতার | ফ্রান্সের ম্যাগাজিন শার্লি হেবদোর বিরুদ্ধে মামলা করলেন এরদোয়ান | এরদোয়ানের বিরুদ্ধে ইউরোপীয় ইউনিয়নে ম্যাক্রোঁর নালিশ | এবার ফ্রান্সের পণ্য বয়কটের ডাক দিলেন জাকির নায়েক |
  • আজ ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সিলেটে নেশাগ্রস্ত হয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা, যুবলীগ নেতা আটক

১১:৪৪ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৮, ২০২০ আন্তর্জাতিক
zuu

সিলেট প্রতিনিধিঃ সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার পশ্চিম জাফলং ইউনিয়নের লংলাখাল (ইসলামাবাদ) গ্রামে ১৫ বছর বয়সী এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা কবির আহমদ (৩৮)-কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আটক ধর্ষক পাৰ্শ্বৱৰ্তী মনাইকান্দি গ্রামের আলা উদ্দিনের পুত্র।

ধর্ষণের ঘটনায় ওই স্কুলছাত্রীর মা বাদি হয়ে গোয়াইনঘাট থানায় একটি মামলা দায়েরে করেন। মামলায় আসামিরা হলেন- উপজেলার মনাইকান্দি গ্রামের আলা উদ্দিনের পুত্র ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা কবির আহমদ ও সুলতানপুর গ্রামের আশরাফ আলীর ছেলে যুবলীগ নেতা দেলওয়ার হোসেন কিবরিয়া। কবিরকে আটকের পর আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে এবং সহযোগী যুবলীগ নেতা দেলওয়ার পলাতক রয়েছেন।

জানা যায়, (৭ অক্টোবর) বুধবার দিবাগত রাত আনুমানিক দুই ঘঠিকার সময় স্কুলছাত্রী পেস্ৰাব করতে ঘরের বাহিরে বের হন। পাৰ্শ্ববর্তী একটি ঘরে মদের আসরে থাকা কতিপয় ওই দুই যুবলীগ নেতা নেশাগ্রস্ত হয়ে তরুণীকে আটকে ধরেন। তরুণী চিৎকার শুনে ঘর থেকে বের হয়ে আত্মীয় স্বজনরা একজনকে আটক করে। এ সময় তার সাথে থাকা অপর যুবলীগ নেতা দেলওয়ার পালিয়ে যান।

পরে উপস্থিত জনসাধারণ আটক যুবলীগ নেতা কবিরকে গণধুলাই দিয়ে পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে সাথে সাথে গোয়াইনঘাট থানা পুলিশের এস আই মহসীন এর নেতৃত্বে সংঙ্গীয় ফোর্স তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, পশ্চিম জাফলং ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য কবির আহমদ ও দেলওয়ার হোসেন কিবরিয়া তারা দলীয় প্রভাব খাঁটিয়ে এলাকায় নেশাগ্রস্ত হয়ে মাতলামী করতেন। তাদের যন্ত্ৰণায় অতিষ্ঠ এলাকাবাসী। এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে আসছে।

স্থানীয়রা কেউ ভয়ে এদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার সাহস পায়নি। যার ফলে এলাকার অনেক অসহায় এই স্কুলছাত্রীর মতো অনেক তরুণীদের সাথে এমন কান্ড করে আসছেন। ভয়ে কেউ তাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার সাহস পায়নি। নিরবে এই দুই নেতা যন্ত্রণা সহ্য করে আসছেন এলাকার অনেক ভুক্তভোগী পরিবার।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে গোয়াইনঘাট অফিসার ইনচার্জ আব্দুল আহাদ কবিরকে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মেয়েটি রাতে বাতরুমের জন্য বাহিরে হলে কবির ও তার সহযোগি ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য দেলোয়ার হোসেন কিবরিয়া মেয়েটি জোর পূর্বক পাশ্ববর্তী একটি বাগানে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্ট করেন।

মেয়েটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে কবিরকে আটক করলেও যুবলীগ নেতা দেলোয়ার পালিয়ে যায়। বৃহস্পতিবার দুপুরে কবিরকে কোর্টে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে এবং অপর আসামী দেলোয়ারকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য মুন্সী আব্দুল মুমিন জানান আমি ঘটনাটি শুনেছি তবে আমি বর্তমানে এলাকার বাহিরে আছি।

গোয়াইনঘাট উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আহমেদ মুস্তাকিন জানান, আমরা খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ইউনিয়ন কমিটির এই দুই সদস্যকে বহিস্কার করেছি এবং তাদের উপযুক্ত শাস্তি দাবি করছি।

france ফ্রান্সের পাশে দাঁড়াল যুক্তরাজ্য

বুধবার, অক্টোবর ২৮, ২০২০