নোয়াখালীতে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন: কালাম-শাহেদ রিমান্ডে

১১:৫৩ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৮, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ
poo

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুরে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় মামলার আসামি কালামকে ৩ মামলায় ১০ দিনের ও শাহেদকে এক মামলায় দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) বিকেলে মামলার শুনানি শেষে নোয়াখালী চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত বেগমগঞ্জ ৩ নম্বর আমলী আদালতের বিচারক মাসফিকুল হকের আদালতে এ রিমান্ড মঞ্জুর হয়।

বেগমগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ আবুল কালামকে ৩ মামলায় ২১ দিন এবং মাঈন উদ্দিন সাহেদকে ২ মামলায় ৮ দিনের রিমান্ড আবেদন করে।

পরে শুনানি শেষে ধর্ষণ মামলায় ৪ দিন, পর্নোগ্রাফি ও নারী নির্যাতন মামলায় ৬ দিনসহ আবুল কালামের মোট ১০ দিন এবং মাঈন উদ্দিনকে নারী নির্যাতন মামলায় ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এ বিষয়ে নোয়াখালী জেলা জজ আদালতের পিপি গুলজার আহমেদ জুয়েল বলেন, গ্রেফতারকৃত আবুল কালাম ও মাঈন উদ্দিন শাহেদকে দুপুরে নোয়াখালী চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ৩নং আমলি আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারিক সোয়েব উদ্দিন খানেরআদালতে হাজির করা হলে তাদের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়।

উল্লেখ্য গত ২ সেপ্টেম্বর দীর্ঘদিন পর নির্যাতনের স্বীকার ওই নারীর বাপের বাড়িতে তার স্বামী তার সঙ্গে দেখা করতে যান। রাত ৯টার দিকে শয়ন কক্ষে স্বামী-স্ত্রী একসঙ্গে ছিলেন। এ সময় বাদল, রহিম, আবুল কালাম, ইস্রাফিল হোসেন, সাজু, সামছুদ্দিন সুমন, আবদুর রব, আরিফ ও রহমত উল্যাসহ অজ্ঞাত আসামিরা দরজা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে। এরপর তার স্বামীকে মারধর করে পাশের কক্ষে নিয়ে আটকে রাখে। এক পর্যায়ে তারা ওই নারীকে বিবস্ত্র করে মারধর ও ধর্ষণের চেষ্টা করেন।

এতে রাজি না হলে আসামিরা তার ওপর নির্মম নির্যাতন চালায় এবং ভিডিও করে রাখে। এ সময় তার আত্মচিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এলে আসামিরা কাউকে কিছু জানালে তাকে হত্যার হুমকি দেয়। আসামিরা চলে যাওয়ার পর কাউকে কিছু না জানিয়ে নির্যাতিতা নারী জেলা শহর মাইজদীতে বোনের বাড়িতে আশ্রয় নেন।

সেখানে থাকা অবস্থায় আসামিদের প্রস্তাবে রাজি না হলে ওই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। এক পর্যায়ে রোববার দুপুরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে।