🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বৃহস্পতিবার, ৩ আষাঢ়, ১৪২৮ ৷ ১৭ জুন, ২০২১ ৷

দীর্ঘ ৮ বছর পর বাংলাদেশিদের জন্য খুললো ইতালির সিজনাল জব ভিসা


❏ মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৩, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- ইতালি সরকার তাদের সিজনাল ও নন-সিজনাল ওয়ার্কার্স কর্মসূচিতে বাংলাদেশকে অর্ন্তভূক্ত করেছে। এর ফলে কালো তালিকা থেকে বেরিয়ে এলো বাংলাদেশ। এখন থেকে আবারও প্রতি বছর বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সিজনাল ও নন-সিজনাল ভিসায় ইতালি গিয়ে কাজ করার সুযোগ পাবেন বাংলাদেশী শ্রমিকরা।

সোমবার (১২ অক্টোবর) রাতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন গণমাধ্যমকে বলেন, ইতালিয়ান সরকার তাদের সিজনাল ও নন-সিজনাল ওয়ার্কার্স কর্মসূচিতে বাংলাদেশকে অর্ন্তভুক্ত করেছে। এর আগে ইতালিয়ান সরকার এই সুযোগটি প্রত্যাহার করে নিয়েছিল। এর কারণ ছিল, বাংলাদেশি খামার শ্রমিকরা প্রতি মৌসুমে দেশে ফেরার পরিবর্তে কখনোই দেশে ফেরত না এসে এই প্রোগ্রামের শর্ত লঙ্ঘন করেছিল।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, এবছর রোম সফরের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশি শ্রমিকদের সিজনাল ও নন-সিজনাল ওয়ার্কার্স প্রোগ্রামের অর্ন্তভুক্ত করার অনুরোধ করেন। ইতালি সরকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুরোধের প্রতি সম্মান জানিয়ে বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য এই সুবিধা প্রদান করেন।

মৌসুম শেষে দেশে ফিরে আসার শর্তে ২০০৮ থেকে ২০১২ সাল পাঁচ বছরে যে ১৮ হাজার বাংলাদেশি মৌসুমী কাজের কন্ট্রাক্টে (সিজনাল জব ভিসায়) বৈধভাবে ইতালি গিয়েছেন, তাদের মধ্যে চাকুরির শর্ত মেনে দেশে ফিরেছেন হাতে গোনা কয়েকজন। বলতে গেলে প্রায় সকলে শর্ত ভঙ্গ করে ইতালিতে থেকে গেছেন অথবা ইউরোপের অন্য কোন দেশে চলে গেছেন। পলায়ন প্রবণতার কারণে ২০১৩ সালে ইতালিয়ান সরকার প্রথমবারের মতো বাংলাদেশকে কালো তালিকাভুক্ত (ব্ল্যাক লিস্টেড) করে।

উল্লেখ্য, ইতালিতে সিজনাল জব ভিসার নিয়ম হলো একজন শ্রমিক কৃষি, হোটেল ও পর্যটন খাতে ছয় মাস ইতালিতে বৈধভাবে কাজ করতে পারবে। এরপর আইন অনুসারে ওই শ্রমিককে নিজ দেশে চলে আসতে হবে। এই নিয়ম পালন করে কোনও শ্রমিক আসা যাওয়ার মধ্যে থাকলে তিনবার পর পূর্ণাঙ্গ বৈধ হওয়ার সুযোগ পায়।