সংবাদ শিরোনাম
মহানবীকে অবমাননা: ম্যাক্রনের সমর্থনে ভারতজুড়ে হ্যাশট্যাগ | বাবা মারা যাওয়ার ২১ দিনের মাথায় সড়ক দুর্ঘটনায় ছেলের মৃত্যু | কত ম্যাক্রোঁ আসলো গেল, ইসলাম সর্ব শ্রেষ্ঠ ধর্ম থেকেই গেল: পার্থ | কুষ্টিয়ায় বিষাক্ত মদপানে তিন যুবকের মৃত্যু | হাজী সেলিমের দখলে থাকা অগ্রণী ব্যাংকের জমি উদ্ধার | করোনাকালেও প্রমাণিত হলো আমরা বীরের জাতি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী | সীমান্তের এই মসজিদে একসঙ্গে নামাজ আদায় করেন বাংলাদেশ-ভারতের মানুষ | ফ্রান্সের হয়ে না খেলার খবরকে মিথ্যা বললেন পগবা | উলিপুর পৌর মেয়রের বাসভবন থেকে পরিচ্ছন্নতাকর্মীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার | হাতীবান্ধায় যুবদলের ৪২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত |
  • আজ ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শাহজাদপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থীর উপর নৌকার সমর্থকদের হামলার অভিযোগ

৪:৫৪ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৩, ২০২০ দেশের খবর, রাজশাহী

রাজিব আহমেদ রাসেল, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার ৬নং পোরজনা ইউনিয়ন পরিষদের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতিকের প্রার্থী আনোয়ার হোসেন বাবুর বিরুদ্ধে নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা প্রদানসহ হামলার অভিযোগ করেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা।

নির্বাচনী আচারণ বিধি লঙ্ঘন করে প্রতিদিন অর্ধশতাধিক মোটরসাইকেল বহর নিয়ে ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন, স্বতন্ত্র প্রার্থীদের পোস্টার লাগানোর সময় বাধা প্রদান ও মাইক দিয়ে প্রচারণাকালে মাইক কেড়ে নিয়ে প্রচারকর্মীদের মারপিটের অভিযোগ এনে ইতোমধ্যেই রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ করেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীদের পক্ষ থেকে।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে স্বতন্ত্র প্রার্থী রফিকুল ইসলাম শাহীন নির্বাচনী ক্যম্পেইন শেষে বাড়ি ফেরার পথে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী আনোয়ার হোসেন বাবুর সমর্থকরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করে এবং গাড়ি ভাঙচুর করে। এছাড়া ঐদিন সকালে রফিকুল ইসলাম শাহীনের ঘোড়া মার্কার পোস্টার লাগানোর সময় তা ছিনিয়ে নেয় নৌকার সমর্থকরা। সোমবার বিকেলে ঘোড়া মার্কার মাইকিং চালানোর সময় বড় মহারাজপুর গ্রামের রিকশাচালক আব্দুল হাকিমকে বেদম প্রহার করে মারাত্মকভাবে আহত করে। এসময় তার রিকশাটি ভেঙে দেয়।

এ ব্যাপারে ঘোড়া মার্কার স্বতন্ত্র প্রার্থী রফিকুল ইসলাম শাহীন সাংবাদিকদের বলেন, মনোনয়ন পাওয়ার পর থেকেই নৌকার প্রার্থী আনোয়ার হোসেন বাবু তার কর্মী সমর্থক ও বাইরে থেকে ভাড়া করা লোকজন দিয়ে পুরো নির্বাচনী এলাকায় তান্ডব সৃষ্টি করেছে। ভোটারদের মনে ভীতি সৃষ্টি করছে। প্রতিদ্বন্দ্বি স্বতন্ত্র প্রার্থীদের প্রচার প্রচারণায় চরম বাঁধা সৃষ্টি করছে।

অবাধ সুষ্ঠ নির্বাচন হলে তিনি বিজয়ী হবেন বলে জোর দাবী করে শাহীন বলেন, তিনি প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশনকে বার বার বিষয়টি অবহিত করছেন। যে কোন ভোট ডাকাতির বিরুদ্ধে তিনি সাধারণ ভোটারদের নিয়ে রুখে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন।

অপরদিকে আরেক সতন্ত্র প্রার্থী রফিকুল ইসলাম রওশনের অটো রিকশা মার্কার প্রচার মাইকিং পোরজনা বাজার অতিক্রম করার সময় নৌকা প্রতীকের সমর্থকেরা রিকশাচালককে মারপিট করে মাইক ছিনিয়ে নেয়। এ ব্যাপারে অটো রিকশার প্রার্থী রফিকুল ইসলাম রওশন জানান, নৌকার সমর্থকরা তার প্রচার মাইক ছিনিয়ে নিয়েছে, বিভিন্ন স্থানে লাগানো পোস্টার ছিড়ে ফেলেছে।

এ ব্যাপারে বড় মহারাজপুর গ্রামের জুয়েল রানা জানান, নৌকার প্রার্থী ঘোষণা দিয়েছেন, তিনি ভোটারদের কাছে ভোট না চেয়ে যে কোন মূল্যে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করবেন। তাই নৌকার প্রার্থী বাবু শুধু জনগন থেকে বিছিন্ন নন, দলীয় নেতা-কর্মিদের উপেক্ষা করে চলছেন। জোর পূর্বক ভোট ডাকাতি করে জেতার স্বপ্ন দেখছেন।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী আনোয়ার হোসেন বাবু জানান, তার বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের আনিত অভিযোগ সম্পর্কে কিছুই জানেন না। এমনকি তার সমর্থকরা কোথাও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের উপর হামলা করছে তাও তিনি জানেন না।

এ বিষয়ে পোরজনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আমজাদ হোসেন জানান, স্বতন্ত্র প্রার্থীদের প্রচারণা বাঁধা দেওয়া উচিৎ নয়। এটা সম্পর্কে তিনিও কিছু জানেননা। তবে নির্বাচনে প্রার্থীর লোকজন কি করল না করল তার দায় দায়িত্ব দলের নয়।

জানতে চাইলে শাহজাদপুর উপজেলা রিটার্নিং অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থীদের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সেই সাথে নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করার জন্য জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সাথে আলোচনা করে বুধবার থেকে একজন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হবে।