বগুড়ায় স্বামী পরিত্যক্তা নারীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা

৫:২০ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৩, ২০২০ দেশের খবর, রাজশাহী

সাখাওয়াত হোসেন জুম্মা, বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ার ধুনট উপজেলার ঘুগরাপাড়া গ্রামে হাসিলা খাতুন (৪১) নামের এক স্বামী পরিত্যক্তা নারীকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে দূর্বৃত্তরা। নিহত হাসিলা খাতুন উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের ঘুগরাপাড়া গ্রামের শুকরা মন্ডলের মেয়ে।

খবর পেয়ে ১৩ অক্টোবর মঙ্গলবার সকাল ৮টায় পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে। ময়নাতদন্তের জন্য মৃতদেহ শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পেরণ করা হয়েছে।

জানা যায়, ধুনট উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের ঘুগরাপাড়া গ্রামের শুকরা মন্ডলের মেয়ে হাসিলা খাতুনের স্বামী আজাহার আলীর দীর্ঘদিন আগে মৃত্যু হয়। তারপর থেকে তিনি ঘুগরাপাড়া গ্রামে বাবার বাড়িতে থাকেন। তার একমাত্র ছেলে হাসেম আলী বিয়ে করে অন্যত্র সংসার গড়েছেন। হাসিলা খাতুন সারা দিন গ্রামে গ্রামে ঘুরে ভিক্ষাবৃত্তি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন এবং রাতে ফিরে বাবার বাড়িতে থাকতেন।

অন্যান্য দিনের ন্যায় সোমবার সকালের দিকে জীবিকার সন্ধানে বাবার বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। রাতে তিনি আর বাড়ি ফেরেন নাই। মঙ্গলবার সকালে বাড়ির অদূরে একটি ধান ক্ষেতের ভেতর তার মৃতদেহ দেখতে পায় স্থানীয়রা। নিহত হাসিলা খাতুনের গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় মাটিতে পড়ে আছে।

ধারণা করা হচ্ছে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে মৃতদেহ ধানক্ষেতের ভেতর ফেলে রেখে গেছে দূর্বৃত্তরা।

নিহতের ছেলে হাসেম আলী এ প্রতিবেদককে বলেন, বিয়ে করে মাকে ছেড়ে পার্শ্ববর্তী গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে ঘর সংসার করছি। সকালে সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে এসেছি। আমার মাকে কে বা কারা শ্বাসরোধে হত্যা করেছে তা এখনো বুঝতে পারছি না।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল করে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। হত্যাকান্ডের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।