🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বৃহস্পতিবার, ৩ আষাঢ়, ১৪২৮ ৷ ১৭ জুন, ২০২১ ৷

আশুলিয়ার কলেশ্বরী গ্রামে হত্যার উদ্দেশ্য বৃদ্ধের উপর হামলা, থানায় অভিযোগ

Asholia
❏ বুধবার, অক্টোবর ১৪, ২০২০ ঢাকা

মনির মন্ডল, নিজস্ব প্রতিবেদক:  বাঁশ কাটাকে কেন্দ্র করে আশুলিয়া থানাধীন কলেশ্বরী গ্রামে নোয়াই চন্দ্র সরকার (৭০) নামের এক বৃদ্ধকে হত্যার উদ্দেশ্যে পিটিয়ে আহত করেছে  প্রতিপক্ষ।

বুধবার(১৪ অক্টোবর)  সকাল আনুমানিক ১১টা ৩০মিনিটে কলেশ্বরী গ্রামের নিজ বসত ঘরের পিছনে তিনি এ হামলার শিকার হন। হামলাকারী বাদল সরকার(৪৮) আশুলিয়া থানাধীন মৃত উপেন্দ্র চন্দ্র সরকারের ছেলে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, কাজের প্রয়োজনে বুধবার সকাল আনুমানিক ১১টা ৩০মিনিটে বসত ঘরের পিছনে নিজের দখলীয় বাঁশঝাড়ে বাঁশ কাটতে যান ভুক্তভোগী নোয়াই সরকার। এ সময় কিছু বুঝে উঠার আগেই পিছন দিক হতে হত্যার উদ্দেশ্যে অভিযুক্ত বাদল সরকার তার মাথায় একাধিক আঘাত করেন। এতে তার চোখের পাশে ফেটে যায়।  ভুক্তভোগীর চিৎকারে ঘটনাস্থল থেকে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে জিরানী বাজার সংলগ্ন বাংলাদেশ কোরিয়ান মৈত্রী হাসপাতালে নিয়ে যান।  ভুক্তভোগীর ক্ষতস্থানে সাতটি সেলাই দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

হামলার শিকার নোয়াই সরকারের বড় ছেলে রাখাল সরকার সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, দীর্ঘদিন ধরে পৈত্রিক সূত্রে মালিকানা লাভ করে নিজ বসত ঘরের পিছনের বাশঁঝাড়টি আমরা ভোগ দখল করে আসছি। কিন্তু কিছু দিন পূর্বে বাঁশ কাটতে গেলে এ বাঁশঝাড়টি নিজের বলে দাবি করে বাঁশ কাটতে বাধা দেয় বাদল সরকার।  এ নিয়ে স্থানীয়দের কাছে বিচার দিলে তারা জমির মাপ এবং কাগজপত্র দেখে আমাদের পক্ষেই রায় দেন। এবং এ বাশঁ ঝাড়টিতে কোন প্রকার হস্তক্ষেপ না করার জন্য বাদলকে নিষেধ করেন।  তারপরও আজ বাঁশ কাটতে গেলে আমার বাবার উপর এ হামলা চালায় বাদল সরকার।

এ ঘটনায় আশুলিয়া থানার ডিউটি অফিসার এস আই ফরিদুল আলম  সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন,  এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর ছেলে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ঘটনাস্থলে  পুলিশ পাঠানো হয়েছে।