সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

লেবানন ও ইসরায়েলের মধ্যে আলোচনা শুরু

১০:২৩ অপরাহ্ণ | বুধবার, অক্টোবর ১৪, ২০২০ আন্তর্জাতিক
Israel Lebanon

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সমুদ্র সীমা নিয়ে বিরোধ নিরসনে আলোচনা শুরু করেছে লেবানন ও ইসরায়েল। বুধবার এক ঘণ্টার মধ্যে এই আলোচনা শেষ হলেও আগামী ২৮ অক্টোবর দ্বিতীয় দফায় তা শুরু হবে। যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্ততায় এই আলোচনা শুরু হয়েছে।

লেবাননের প্রতিনিধিদলের প্রধান বলেছেন, ‘যুক্তিসংগত সময়ের’ মধ্যে সমুদ্রসীমা বিরোধ সমাধান করা হবে। এই আলোচনা দুপক্ষের জন্যই ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

দুই দেশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দীর্ঘ সময় লাগলেও একাধিকবার আলোচনায় বসে পুরোপুরি সমস্যা সমাধান করতে আগ্রহী তারা। তবে এখনই ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার বিষয়ে কোনো আলোচনার জন্য প্রস্তুত নয় লেবানন।

এ নিয়ে লেবাননের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল বাসাম ইয়াসিন বলেন, এই আলোচনার মধ্য দিয়ে দুই দেশের হাজার মাইল দীর্ঘ সমুদ্রসীমা বিরোধ নিয়ে প্রথম মীমাংসার আলো দেখল।

এ আলোচনা বাহরাইন ও আরব আমিরাত ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার এক মাসের মাথায় শুরু হলো। যদিও লেবানন বলছে, তারা সম্পর্ক স্বাভাবিক করার বিষয়ে এখনই আগ্রহী নয়। ইসরায়েলে এবং লেবাননের সঙ্গে কোনো কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই। একই সঙ্গে দু’দেশের দীর্ঘ দিন ধরে সংঘাত বিদ্যমান।

দেশ দুটি দাবি করে আসছে, ‘সাগরে ৮৬০ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিজেদের। ওই অঞ্চরে দু’দেশই একটি অর্থনৈতিক অঞ্চল গঠনের চেষ্টা চালাচ্ছে।

লেবাননের পররাষ্ট্রমন্ত্রী চারবেল ওয়াহবি বলেন, ‘তারা যতটা প্রত্যাশা করছে তার চেয়ে বেশি মারাত্মক হবে পরিস্থিতি। কারণ আমাদের হারানোর কিছু নেই।’

উল্লেখ্য ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলা করছে লেবানন। দেশটির ওপর বেশ কিছু মার্কিন নিষেধাজ্ঞাও বহাল রয়েছে। লেবাননের শিয়া মতাদর্শিক সংগঠন হিজবুল্লাহ সংশ্লিষ্টতার দায়ে সম্প্রতি দেশটির দুই সাবেক প্রভাবশালী মন্ত্রীর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ওয়াশিংটন।

যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি ইসরায়েলও ইরান সমর্থিত হিজবুল্লাহকে সন্ত্রাসী সংগঠন বিবেচনা করে থাকে। এমন প্রেক্ষাপটে লেবাননের সীমান্ত শহর নাকুরায় জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনের সদর দফতরে আলোচনায় বসে ইসরায়েল ও লেবাননের কর্মকর্তারা।