শেখ রাসেলের জন্মদিনে পথ শিশুদের মাঝে বাকৃবি ছাত্রলীগের শিক্ষা উপকরণ বিতরণ

১০:৫২ অপরাহ্ন | রবিবার, অক্টোবর ১৮, ২০২০ ময়মনসিংহ
bb

সময়ের কণ্ঠস্বর, ময়মনসিংহঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট ছেলে ও আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট ভাই শেখ রাসেলের ৫৭ তম জন্মদিন উপলক্ষে পথ শিশুদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ।

রোববার (১৮ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের পার্টি অফিসের সামনে দরিদ্র শিশুদের মাঝে খাতা কলম পেন্সিল বিতরণ করা হয় এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

এ সময় গণতান্ত্রিক শিক্ষক ফোরামের সহ-সভাপতি ও ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা ড. এ. কে. এম. জাকির হোসেন, সহযোগী ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মোঃ আজহারুল ইসলাম, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিয়া মোহাম্মদ রুবেল ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় বাকৃবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিয়া মোহাম্মদ রুবেল বলেন, শহীদ শেখ রাসেল আজ বাংলাদেশের শিশু-কিশোর, তরুণ, শুভবুদ্ধিবোধ সম্পন্ন মানুষদের কাছে ভালোবাসার নাম। অবহেলিত, পশ্চাৎপদ, অধিকার বঞ্চিত শিশুদের আলোকিত জীবন গড়ার প্রতীক হয়ে গ্রাম-গঞ্জ-শহর তথা বাংলাদেশের বিস্তীর্ণ জনপদ-লোকালয়ে শেখ রাসেল আজ এক মানবিক সত্ত্বায় পরিণত হয়েছেন।

‘মানবিক চেতনা সম্পন্ন সকল মানুষ শেখ রাসেলের মর্মান্তিক বিয়োগ বেদনাকে হৃদয়ে ধারণ করে বাংলার প্রতিটি শিশু-কিশোর তরুণের মুখে হাসি ফোটাতে আজ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

তিনি আরও বলেন, ‘১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট মানবতার শত্রু ঘৃণ্য ঘাতকদের নির্মম বুলেটের হাত থেকে রক্ষা পাননি বঙ্গবন্ধুর শিশুপুত্র শেখ রাসেলও। সেদিন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে নরপিশাচরা নিষ্ঠুরভাবে তাকেও হত্যা করেছিল। ১৯৭৫ এর সব শহীদদের রুহের মাগফিরাত কামনা করছি এবং তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি সেই সব দোষীদের প্রতি যারা ছোট্ট একটা নিষ্পাপ শিশুকেও ছাড় দেয়নি।’
aaa

উল্লেখ্য ১৯৬৪ সালের ১৮ অক্টোবর ধানমন্ডির ৩২ নম্বর সড়কের বঙ্গবন্ধু ভবনে জন্মগ্রহণ করেন শেখ রাসেল। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকদের বুলেটের আঘাতে পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে হত্যা করা হয় শিশু রাসেলকেও। পাঁচ ভাইবোনের মধ্যে রাসেল ছিলেন সর্বকনিষ্ঠ।