সংবাদ শিরোনাম

বিমানের টিকিটের জন্য জমানো টাকায় তরুণকে ইজিবাইক কিনে দিলেন সুমন | মৌলবাদী গোষ্ঠী ধর্মীয় সংগঠন করে রাজনৈতিক খায়েশ মেটাচ্ছে: শিক্ষা উপমন্ত্রী | ‘আওয়ামী লীগ-বিএনপি লড়াই নাই, দেশের মানুষ ভাই ভাই'- বাবুনগরী | নাগরিকদের বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন দেবে মালয়েশিয়া | ছেলের নামে টুর্নামেন্টের আয়োজন করে খেলোয়াড়দের পেটালেন ইউএনও! | ভাস্কর্য আমার বাবার হলেও টেনেহিঁচড়ে ফেলে দেবো: বাবুনগরী | মাহফিলে বক্তব্য না দিয়েই ঢাকায় ফিরে গেলেন মামুনুল হক | ঝিকরগাছায় ধানের বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে খুশির ঝিলিক | অনলাইনে ১৬ লাখ টাকার ফ্যান কিনে পেলেন ঝুট কাপড় ও ইট! | সন্ত্রাসী হামলায় ইরানের জ্যেষ্ঠ পরমাণুবিজ্ঞানী নিহত |

  • আজ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দ্বিতীয় দফায় লকডাউনে আয়ারল্যান্ড

৯:১১ অপরাহ্ন | বুধবার, অক্টোবর ২১, ২০২০ আন্তর্জাতিক
ireland

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ করোনা সংক্রমণরোধে দ্বিতীয় বারের মত লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছেন আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মিহল মার্টিন। তবে দেশব্যাপী লকডাউন ঘোষণা করা হলেও স্কুল-কলেজ খোলা থাকবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

করোনা সংক্রমণরোধে পাঁচটি ধাপের একটি পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছিলো আয়ারল্যান্ড। প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় ধাপেও সংক্রমণরোধ সম্ভব হয়নি, বরং শ' ছাড়িয়ে প্রতিদিন হাজারেরও বেশি আক্রান্ত হচ্ছে গেলো কয়েক সপ্তাহ ধরে। এ অবস্থায় পাঁচ নম্বর ধাপে পুরো লকডাউনের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী মিহল মার্টিনের।

প্রথম লকডাউনে স্কুলগুলো বন্ধ থাকলেও দ্বিতীয় লকডাউনে স্কুলগুলো খোলা রেখেই বুধবার মধ্যরাত থেকে কার্যকর হচ্ছে বিধি-নিষেধ।

স্কুল-কলেজ খোলা রাখার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ডে কেয়ার সেন্টার ও স্কুল-কলেজ এ সময়ে খোলা থাকবে। এক করোনা মহামারির কারণে আমরা আমাদের শিশুদের ভবিষ্যৎ নষ্ট হতে দিতে পারি না। আমরা আগামী ছয় সপ্তাহ লকডাউন কঠোরভাবে পালন করব। এরপর একসঙ্গে আনন্দ-উল্লাসের মধ্য দিয়ে বড়দিন পালন করব।’

সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ভাবিয়ে তুলছে বাংলাদেশি কমিউনিটিকেও। তবে সঠিক সময়ে সরকার লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে মত তাদের।

আয়ারল্যান্ড প্রবাসী এক বাংলাদেশি বলেন, গেলো কয়েক সপ্তাহ ধরে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। বর্তমানে প্রতিদিন প্রায় ১ হাজার মানুষের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি মিলছে। আয়ারল্যান্ডের আয়তন এবং জনসংখ্যার আনুপাতিক হারে এ সংখ্যা অনেক বেশি। এ কারণে সরকার সময় উপযোগী সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে আমাদের বিশ্বাস।

দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৫২ হাজারের বেশি মানুষ।