সংবাদ শিরোনাম

বিমানের টিকিটের জন্য জমানো টাকায় তরুণকে ইজিবাইক কিনে দিলেন সুমন | মৌলবাদী গোষ্ঠী ধর্মীয় সংগঠন করে রাজনৈতিক খায়েশ মেটাচ্ছে: শিক্ষা উপমন্ত্রী | ‘আওয়ামী লীগ-বিএনপি লড়াই নাই, দেশের মানুষ ভাই ভাই'- বাবুনগরী | নাগরিকদের বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন দেবে মালয়েশিয়া | ছেলের নামে টুর্নামেন্টের আয়োজন করে খেলোয়াড়দের পেটালেন ইউএনও! | ভাস্কর্য আমার বাবার হলেও টেনেহিঁচড়ে ফেলে দেবো: বাবুনগরী | মাহফিলে বক্তব্য না দিয়েই ঢাকায় ফিরে গেলেন মামুনুল হক | ঝিকরগাছায় ধানের বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে খুশির ঝিলিক | অনলাইনে ১৬ লাখ টাকার ফ্যান কিনে পেলেন ঝুট কাপড় ও ইট! | সন্ত্রাসী হামলায় ইরানের জ্যেষ্ঠ পরমাণুবিজ্ঞানী নিহত |

  • আজ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

যশোরে ৪ দফা দাবিতে আকিজ বিড়ি শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

৭:২০ অপরাহ্ন | শনিবার, অক্টোবর ২৪, ২০২০ খুলনা, দেশের খবর
সড়ক অবরোধ

মহসিন মিলন, বেনাপোল প্রতিনিধি- যশোরের শার্শা উপজেলার নাভারণ আকিজ বিড়ি ফ্যাক্টরীর শ্রমিকরা ৪ দফা দাবি আদায়ের জন্যে বিক্ষোভ সমাবেশ ও সড়ক অবরোধ করেছে।

শনিবার সকাল ৮টা থেকে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত তারা ফ্যাক্টরির সামনে অবস্থান করে এবং মহাসড়ক্ বড় বড় গাছের গুড়ি ফেলে যশোর-বেনাপোল মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এ ঘটনায় যশোর- বেনাপোল মহাসড়কের উভয় পাশে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চরম ভোগান্তিতে পড়ে সড়কে চলাচলকারী শত শত যানবাহন এবং যাত্রী সাধারণ।

বিড়ি শ্রমিকদের বিক্ষোভ সমাবেশ ও সড়ক অবরোধে দাবী আদায়ের বিভিন্ন শ্লোগানে উত্তাল হয়ে পড়ে ফ্যাক্টরী এলাকা। ব্যস্ততম সড়কে তীব্র যানজট ও প্রতিবাদী আন্দোলনরত শ্রমিকদের নিয়ন্ত্রণে আনতে স্থানীয় নাভারণ হাইওয়ে থানা পুলিশ, ঝিকরগাছা থানা পুলিশ, নাভারণ সার্কেল এএসপি, ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং নাভারণ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এসে তাদের দাবি পুরণের জন্য আশ্বাস্ত করলে শ্রমিকরা ৪ ঘন্টা পর সড়ক অবরোধ তুলে নেন।

পরে শ্রমিক নেতা, প্রশাসন এবং ফ্যাক্টরী কর্তৃপক্ষগণ মিলে এক ঘরোয়া বৈঠকের মাধ্যমে শ্রমিকদের সব দাবি মেনে নেবেন বলে আশ্বস্ত করলেও সোমবার আবারো বৈঠক শেষে সঠিক সিদ্ধান্ত নেবেন এবং আগামী মঙ্গলবার যথা নিয়মে ফ্যাক্টরীর উৎপাদনের কাজ চালু হবে বলে জানান ফ্যাক্টরী কর্তৃপক্ষ।

এদিকে বিড়ি শ্রমিকরা জানান, সোমবার বৈঠক শেষে মঙ্গলবার ফ্যাক্টরী খোলা এবং তাদের সব দাবি যথাযথ পুরণ না হলে পুনরায় কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন।