• আজ ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘আমার ছেলেকে মেরেছে, আমাকেও গুলি করে মারা হোক’

⏱ ৩:০০ অপরাহ্ন | রবিবার, অক্টোবর ২৫, ২০২০ 📂 আলোচিত বাংলাদেশ
রায়হানের মা

আবুল হোসেন, সিলেট- ছেলের ‘হত্যাকারী’ এসআই আকবর হোসেন ভূঁইযার গ্রেফতার দাবিতে ফাঁড়ির সামনে কাফনের কাপড় মাথায় বেধে অনশনে নিহত রায়হানের মা সালমা বেগম। তার সঙ্গে যোগ দিয়েছেন আত্মীয় স্বজনসহ আরো অনেকে।

রোববার (২৫ অক্টোবর) সকাল ১১ টা্ থেকে সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির সামনে আমরণ অনশনে বসেন রায়হানের মা সালমা বেগম ও তার স্বজনরা।

এসময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আমার বুকের ধন একমাত্র ছেলেকে কেড়ে নিয়েছে এই ফাঁড়ির সাবেক ইনচার্জ এসআই আকবর ও তার সহযোগীরা। বর্বরোচিতভাবে নির্যাতন করে আমার ছেলেকে হত্যা করেছে তারা। আমি এই হত্যাকারীদের বিচার চাই। আর না হয়, আমার ছেলেকে মেরেছে, আমাকে গুলি করে মারা হোক।

তিনি বলেন, আমার ছেলের হত্যাকারী এসআই আকবরকে না ধরা পর্যন্ত আমি এখানেই অবস্থান করবো। এই কর্মসূচী কোনো দলীয় কর্মসূচী নয়। তাই দলমত নির্বিশেষে সবাইকে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানান।

আকবরের সালমা বেগম বলেন, আমার ছেলেকে এই ফাঁড়িতে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার আজ ১৫ দিন অতিবাহিত হলেও এসআই আকবরকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না। সেই সঙ্গে পুলিশ হেফাজতে থাকা আকবরের সহযোগীদেরও গ্রেফতার দেখানো হচ্ছে না। তাদের গ্রেফতার দেখিয়ে রিমাণ্ডে নেওয়ার দাবি জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, এসআই আকবর ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার করে রিমাণ্ডে নিলে অনেক তথ্য বেরিয়ে আসবে-কারা এর পেছনে জড়িত।

এসময় রায়হান হত্যার ঘটনায় ব্যবসায়ীরাও রাজপথে মিছিল বের করেন। তারা নগরের কোর্ট পয়েন্টে কর্মসূচী দিলেও পরবর্তীতে রায়হানের মায়ের করা অনশনে এসে বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ি ঘেরাও করে রেখে রায়হান হত্যার মুল হুতা এসআই আকবর ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার দাবি জানান।