সংবাদ শিরোনাম

বগুড়া আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিএনপিপন্থীদের জয় | বাংলাদেশকে আফগানিস্তান-পাকিস্তান হতে দেবো না: নওফেল | টি-টোয়েন্টিতে ৫ হাজার রানের মাইলফলকে সাকিব | শেষপর্যন্ত ভেঙে গেলো অভিনেত্রী শবনম ফারিয়ার সংসার | মৌলবাদ-ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকুন: তথ্যমন্ত্রী | আরব সাগরে ভেঙে পড়ল ভারতীয় যুদ্ধবিমান | ধর্মপ্রাণ প্রধানমন্ত্রী যখন ক্ষমতায়, এ দেশে ইসলামবিরোধী কোনো কার্যক্রম হবে না: কাদের | কুড়িগ্রামে নারিকেল দেয়ার কথা বলে শিশু ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেপ্তার | প্রবাসী স্বামীকে ছেড়ে প্রেমিককে বিয়ে, কাবিনের 'টাকার চাপে' স্ট্রোক করে বৃদ্ধ বাবার মৃত্যু | রাস পূজায় অংশ নিতে দুবলার পথে তীর্থযাত্রী ও হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা |

  • আজ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ফ্রান্সে একদিনে ৫০ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত

৪:৪৭ অপরাহ্ন | সোমবার, অক্টোবর ২৬, ২০২০ আন্তর্জাতিক
ফ্রান্সে করোনা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ইউরোপের অনেক দেশেই নতুন করে সংক্রমণ বেড়ে গেছে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হওয়ায় বেশিরভাগ দেশেই কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। এদিকে, ফ্রান্সে করোনার দৈনিক সংক্রমণ অর্ধলাখ ছাড়িয়ে গেছে। যা আগের সব রেকর্ড ভেঙেছে।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষের তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৫২ হাজার ১০ জন। এখন পর্যন্ত দেশটিতে এটাই সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যা। ফ্রান্সের জনস্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ বলেছে, একই সময়ে ১শ’ ১৬ জন প্রাণ হারিয়েছে।

সেপ্টেম্বরের শুরুতে ফ্রান্সে করোনার নমুনা পরীক্ষায় মাত্র সাড়ে ৪ শতাংশ পজিটিভ আসছিল। অথচ গতকালের তথ্যে দেখা গেছে, নমুনা পরীক্ষা হওয়া ১৭ শতাংশের শরীরে করোনা পজিটিভ এসেছে।

এদিকে দ্বিতীয় দফায় করোনার ঢেউ সামলাতে ব্যাপক সতর্কতার অংশ হিসেবে দেশব্যাপী জরুরি অবস্থা ও রাত্রিকালীন কারফিউ জারি করেছে স্পেন। প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ জানান, এ কারফিউ প্রতি রাত ১১টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত বহাল থাকবে।

ইউরোপজুড়েই আবার করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে বাড়ছে। আসন্ন শীতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই ইউরোপের বেশির ভাগ দেশই সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ধাপে ধাপে নানা কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করছে।

ফ্রান্সে এ পর্যন্ত ১১ লাখ ৩৮ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আর এদের মধ্যে আজ সোমবার পর্যন্ত মারা গেছেন ৪৫ হাজার ৭৩১ জন। অন্যদিকে স্পেনে এখন পর্যন্ত ১১ লাখ ১০ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ৩৫ হাজার জনের বেশি মানুষ।