সংবাদ শিরোনাম

কুমিল্লায় কাভার্ডভ্যান চাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত | সঞ্জয় দত্তকে দেখতে গেলেন কঙ্গনা, নাখোশ ভক্ত সমর্থকরা | ঘরে বসেই তৈরি করুন মজাদার চিকেন রোল | চাঁদপুরে লঞ্চে অনৈতিক কার্যক্রম রোধে নিয়মিত টহলে থাকবে নৌ-পুলিশ | বিমানের টিকিটের জন্য জমানো টাকায় তরুণকে ইজিবাইক কিনে দিলেন সুমন | মৌলবাদী গোষ্ঠী ধর্মীয় সংগঠন করে রাজনৈতিক খায়েশ মেটাচ্ছে: শিক্ষা উপমন্ত্রী | ‘আওয়ামী লীগ-বিএনপি লড়াই নাই, দেশের মানুষ ভাই ভাই'- বাবুনগরী | নাগরিকদের বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন দেবে মালয়েশিয়া | ছেলের নামে টুর্নামেন্টের আয়োজন করে খেলোয়াড়দের পেটালেন ইউএনও! | ভাস্কর্য আমার বাবার হলেও টেনেহিঁচড়ে ফেলে দেবো: বাবুনগরী |

  • আজ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

জবিতে হাজী সেলিমের দখলে থাকা তিব্বত হল সহ সকল হল উদ্ধারের দাবি

১১:৩৯ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৯, ২০২০ শিক্ষাঙ্গন
ju

জবি প্রতিনিধিঃ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) বেদখলে থাকা সকল হল সহ হাজী সেলিম কর্তৃক দখলকৃত তিব্বত হল উদ্ধারের দাবিতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যনারে মানববন্ধন-বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নিয়েছে জবির শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) বিকাল ৪ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

উক্ত কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাহমুদুল ইসলাম মিশু বলেন, আগামী এক যুগের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের যে নতুন ক্যাম্পাসের কথা বলা হচ্ছে সেখানেও হল পাওয়া আর রূপকথার গল্প দুটোই সমার্থক। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে হল তো দূরের কথা পর্যাপ্ত পরিমাণ ক্লাসরুমই নেই। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের বেদখলে থাকা হলগুলো ফিরে পেতে চাই।

তৌসিব সোহান নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক শিক্ষার্থী বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের যে হল হাজী সেলিম দখল করে রেখেছেন সেটা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন অবিলম্বে যেন উদ্ধারের ব্যবস্থা নেয়। যতদিন পর্যন্ত প্রশাসন বেদখলে থাকা হল উদ্ধারে ব্যবস্থা না নেবে ততদিন পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা মাঠে থাকবে।

প্রসঙ্গত, বিশ্ববিদ্যালয়টিতে আবাসিক সংকট নিয়ে চলতে চলতে ২০১৪ ও ২০১৬ সালে হল নিয়ে বড় দুইটি অন্দোলন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। পুলিশের টিয়ার গ্যাস-রাবার বুলেটের নির্যাতন সহ্য করেও সফল হতে পারেননি তারা। অভিযোগ রয়েছে, হলগুলো প্রভাবশালী ও ক্ষমতাসীন ব্যক্তিদের অবৈধভাবে দখল করে রেখেছেন।

২০০৫ সালে জগন্নাথ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে রুপান্তর করা হয়। কলেজ থাকাকালীন সময়ে জগন্নাথে হল ছিল ১২টি। কিন্তু ১৯৮৫ সালে স্থানীয়দের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষে হলগুলো বেদখল হয়।

শিক্ষার্থীদের বৃহৎ দুই আন্দোলনের পরও এসব হল উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। তবে এবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠার ১৫ বছর পর গত ২০ অক্টোবর প্রথম ছাত্রীহল উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে অনাবাসিক তকমা গুছিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়।