চাঁদপুরে জনবল সংকটে পুলিশ: জেলেদের হামলা অব্যাহত

১২:৩৫ পূর্বাহ্ন | রবিবার, নভেম্বর ১, ২০২০ চট্টগ্রাম
Chadpur

চাঁদপুর প্রতিনিধি:  চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনায় কোন ভাবেই যেনো বন্ধ হচ্ছে না মা ইলিশ শিকার। সময় বারার সাথে সাথে জেলেরাও হয়ে উঠছে ভয়ংকর বেপরোয়া। মা ইলিশ শিকারে তারা বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছে। এমনকি প্রতিনিয়ন হামলা করার প্রস্তুতি নিয়েই নদীতে নামছে জেলেরা।

প্রশাসনের অভিযানের পরও বন্ধ হচ্ছেনা মা-ইলিশ শিকার। সরকারের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে প্রজনন মৌসুমে অসাধু জেলেরা প্রতিনিয়ত নদীতে ইলিশ শিকারে নামছেন।  নদীতে দাপিয়ে বেড়ানো বেপরোয়া জেলের দল সংঘবদ্ধ হয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং প্রশাসনের উপরও চড়াও হচ্ছে। অন্যদিকে জনবল সংকটের কারণে নদীতে এসব জেলেদের বিরুদ্ধে টানা অভিযান চালানো কষ্টসাধ্য হয়ে উঠেছে।

মা ইলিশ রক্ষা অভিযানে চাঁদপুর নৌ থানার অভিযানে আবারো জেলারা হামলা চালিয়েছে।শনিবার (৩১ অক্টোবর) বিকেলে নৌ থানা পুলিশের ২ টিম নদীতে টহলে নামে। এসময় রাজরাজেশ্বর এলাকায় জেলেরা মাছ শিকার অবস্থায় জেলেদের ট্রলারে ধাওয়া করার পর্যায়ে জেলেরা ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। তবে এ ঘটনায় কেউ আহত হয়নি। এ সময় পুলিশ এক রাউন্ড গুলি ছুড়ে।

চাঁদপুর নৌ পুলিশ ফাড়ির অফিসার ইনচার্জ কবির হোসেন বলেন, 'কোনভাবেই জেলেদের ছাড় দেওয়া হচ্ছেনা, দিনে-রাতে আমাদের টিম নদীতে কাজ করছে। জেলেদের বেপোরোয়া আচরণকে উপেক্ষা করেই আমরা কাজ করছি'।

উল্ল্যেখ্য, প্রজনন মৌসুমে ইলিশের বংশ বিস্তারে সরকার ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত ইলিশ শিকার নিষিদ্ধ করেছেন। নিষেধাজ্ঞার আওতায় চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনল থেকে হাইমচর উপজেলার চরভৈরবী পর্যন্ত প্রায় ৯০ কিলোমিটার এলাকা রয়েছে।