• আজ ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ত্রিশালে অপহরনের ২৭ দিনেও উদ্ধার হয়নি স্কুল ছাত্রী মীম

⏱ ৮:৫৯ অপরাহ্ন | রবিবার, নভেম্বর ১, ২০২০ 📂 ময়মনসিংহ
Trishal Picture

ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি: পনের বছর বয়সি এসএসসি পরীক্ষার্থী সাদিয়া আফরিন মীম নানার বাড়ি থেকে বাসায় ফেরারপথে অপহরন হয়। গত ৫ অক্টোবর সকালে ত্রিশাল পৌরশহরের গো-হাটা মোড় এলাকায় ঘটে ওই ঘটনা। অনেক খোঁজাখুঁজির পর মা বিলকিছ আক্তার বাদী হয়ে ত্রিশাল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলেও গত ২৭ দিনেও উদ্ধার হয়নি অপহৃত ওই স্কুল ছাত্রী।

ত্রিশাল পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের উজানপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সৌদি প্রবাসি সিরাজুল ইসলামের মেয়ে সাদিয়া আফরিন মীম পড়াশোনা করত ময়মনসিংহ শহরের মহাকালী উচ্চ বিদ্যালয়ে। সে এবছর এসএসসি পরীক্ষার্থী। করোনা ভাইরাসের প্রভাবে স্কুল বন্ধ থাকার সুবাদে উপজেলার ধানীখোলা ইউনিয়নের সামানিয়াপাড়া নানার বাড়ি বেড়াতে যায় সে।

 ৮/১০ দিন নানাবাড়ি অবস্থানের পর গত ৫ অক্টোবর সকালে বাসায় ফেরারপথে ত্রিশাল পৌরশহরের গো-হাটা মোড় এলাকা হতে অপহরন হয় ওই শিক্ষার্থী। সম্ভাব্য অনেক স্থানে খোঁজাখুঁজির পর মা বিলকিছ আক্তার বাদী হয়ে ১৩ অক্টোবর সন্দেহভাজন তিনজনের নাম উল্লেখ করে ত্রিশাল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু গত ২৭ দিনেও উদ্ধার হয়নি অপহৃত ওই স্কুল ছাত্রী।

এদিকে একমাত্র মেয়ে নিখোঁজের পর মা বিলকিছ আক্তার বেশ অনেকবার জ্ঞান হারিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে ত্রিশাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টানা তিনদিন চিকিৎসাধীন ছিলেন। মেয়ের সন্ধানের অপেক্ষায় নিদ্রাহীন রাত কাটছে মায়ের।

পরিবার ও স্বজনদের অভিযোগ, অপহরনের সঙ্গে জড়িত জেলার তারাকান্দা থানার কামারিয়া গজারিয়াপাড়া গ্রামের প্রভাবশালী অলিউল্লাহ ডাক্তারের ছেলে রাফিউল বাসার ওরফে রাফিকে গ্রেফতার করছে না পুলিশ। ২৭দিন আগে অপহরন হলেও মেয়েটিকে উদ্ধারেও পুলিশের কোনরুপ তৎপরতা লক্ষন পরিলক্ষিত হচ্ছে না, তারা বিষয়টি নিয়ে গরিমসি করছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ফেরদৌস আলম ফাহাদ, ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধারের জন্য বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় চেষ্টা চলছে।