সংবাদ শিরোনাম

আগামীকাল বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর ভিত্তি স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী | জিনের আছর ভর করেছিল, ১৭ দিনের শিশু হত্যার দায় স্বীকার করলেন মা | রংপুরে অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে পুলিশ সদস্য আটক | বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে অনাহুত বিতর্কের ভিন্ন উদ্দেশ্য থাকতে পারে: কাদের | দেশে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিতে ভারত সরাসরি জড়িত: ডা. জাফরুল্লাহ | পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেনের দ্রুত আরোগ্য কামনা ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর | আ.লীগে যোগ দিলেন বঙ্গবন্ধুর ছবি পোড়ানো মামলার প্রধান আসামি | চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের ভূমি অফিস: ঘুষ ছাড়া নড়েনা ফাইল! | পরমাণু বিজ্ঞানী হত্যার কঠিন প্রতিশোধ নেয়ার ঘোষণা ইরানের | মামুনুল হককে ছাড়াই শেষ হলো মাহফিল, ক্ষোভ ঝাড়লেন বাবুনগরী |

  • আজ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

প্রথম সমকামী উপ-প্রধানমন্ত্রী পেল নিউজিল্যান্ড

৩:১৯ অপরাহ্ন | শুক্রবার, নভেম্বর ৬, ২০২০ আন্তর্জাতিক
jessi

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ দ্বিতীয়বারের মতো নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন জেসিন্ডা আরডার্ন। এদিকে নির্বাচিত হয়েই নতুন মন্ত্রিসভা গঠনের ক্ষেত্রে ইতিহাস রচনা করেছেন জেসিন্ডা।

তার নতুন মন্ত্রিসভায় উপ-প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন সমকামী গ্র্যান্ট রবার্টসন। দেশটির ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এক সমকামী পুরুষকে উপ-প্রধানমন্ত্রী নিযুক্ত করা হল। এছাড়া এক আদিবাসী নারীকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিযুক্ত করেছেন জেসিন্ডা।

শুক্রবার তার ও মন্ত্রিসভার সদস্যদের শপথ পাঠ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। রাজধানী ওয়েলিংটনের গভর্নমেন্ট হাউসে এই শপথ নেয়ার আয়োজন করা হয়।

শপথ অনুষ্ঠানে নিউজিল্যান্ড প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন বলেন, নতুন মন্ত্রিসভাকে স্মরণ করিয়ে দিয়েছি, অনেক বড় দায়িত্ব নিয়ে আমাদের কাজ করে যেতে হবে। অনেক চ্যালেঞ্জিং পরিস্থিতি আসবে তা একত্রে আমাদের মোকাবেলা করতে হবে।

মন্ত্রিসভা গঠনের আগেই জেসিন্ডা জানিয়েছিলেন অবিশ্বাস্যরকম বৈচিত্র্যময় মন্ত্রিসভা গঠন করবেন তিনি। নারী, আদিবাসী ও সমকামী নিয়ে গঠিত হয়েছে তার কেবিনেট। জেসিন্ডার নতুন মন্ত্রিসভায় উপপ্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সমকামী গ্র্যান্ট রবার্টসনকে। আর পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়া হয়েছে মাওরি সম্প্রদায়ের নানাইয়া মাহুতাকে।

উল্লেখ্য করোনাভাইরাসসহ নানা সংকট শক্ত হাতে মোকাবিলা করায় আরডার্নের জনপ্রিয়তা অনেক বেড়েছে। নির্বাচনেও তার প্রমাণ মিলেছে। গত ১৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিত নিউজিল্যান্ডের জাতীয় নির্বাচনে দেশটির ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জয় পায় আরডার্নের নেতৃত্বাধীন লেবার পার্টি।

শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা ফলে দেখা গেছে ৫০ শতাংশ ভোট পেয়েছেন আরডার্নের দল। পার্লামেন্টে ১২০টি আসনের মধ্যে তার দলের ঘরে গেছে ৬৫টি। বিরোধী দল ন্যাশনাল পার্টি পেয়েছে মাত্র ৩৩টি আসন।