সংবাদ শিরোনাম

১৯৬৭ সালের সীমান্ত অনুযায়ী স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র চায় বাংলাদেশ | রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলা লড়তে গাম্বিয়াকে ৫ লাখ ডলার দিয়েছে বাংলাদেশ | মির্জাপুরে মাটি উত্তোলনের দায়ে ব্যবসায়ীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা | ঝালকাঠিতে হত্যা মামলায় স্কুল শিক্ষিকাসহ গ্রেপ্তার ২ | সিলেট জাপায় শতাধিক নেতাকর্মীর যোগদান | পঞ্চগড় পৌরসভায় আ.লীগের মনোনয়ন পেলেন জাকিয়া খাতুন | মানিকগঞ্জ পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতীক পেলেন সাবেক মেয়র রমজান আলী | চিনিকল বন্ধের ঘোষণা বাতিলসহ ৪ দফা দাবিতে শ্রমিকদের মানববন্ধন | বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারীদের শাস্তির দাবিতে ঠাকুরগাঁওয়ে মানববন্ধন | একটু জোরে ধাক্কা দিলে সরকার ক্ষমতা থেকে পড়ে যাবে: ডা. জাফরুল্লাহ |

  • আজ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

এবার অস্ট্রিয়ায় বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে মসজিদ!

১১:২৯ অপরাহ্ন | শনিবার, নভেম্বর ৭, ২০২০ আন্তর্জাতিক
austiya

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ চলতি সপ্তাহের শুরুতে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় ভয়াবহ হামলার জেরে জাতীয় নিরাপত্তার হুমকিস্বরূপ একটি মসজিদ বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। পরবর্তীতে আরো মসজিদ বন্ধের ঘোষণা আসতে পারে।

শুক্রবার এপ্রসঙ্গে অস্ট্রিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানানো হয়, এই সপ্তাহের প্রথমেই রাজধানী ভিয়েনাতে সন্ত্রাসবাদী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এরপরই জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে একটি মসজিদ বন্ধ করে দেওয়া হয়। কিছুদিনের মধ্যে আরো মসজিদ বন্ধ করার বিষয়ে পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে। খুব তাড়াতাড়ি এবিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্ল নেহামার ও ইন্ট্রিগ্রেশন মিনিস্টার সুসান রবাব সাংবাদিক বৈঠক করে বিস্তারিত তথ্য দেবেন।

অস্ট্রিয়ার আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃত ইসলামিক ধর্মীয় সম্প্রদায়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনার পর আমরা একটি মসজিদ বন্ধ করে দিচ্ছি। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, 'ধর্মীয় মতবাদ এবং এর গঠনতন্ত্র' এর নিয়ম ভাঙায় মসজিদটি বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে।

অস্ট্রিয়ায় যারা আইনের শাসনের সুযোগ নিতে চেষ্টা করেন তাদের বিরুদ্ধে এই বন্ধকে (মসজিদ বন্ধ) একটি ‘গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ‘ বলে দাবি করেছেন অস্ট্রিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্ল নেহামার।

উল্লেখ্য, গত সোমবার ভিয়েনায় হামলায় চার জনকে হত্যা করে হামলাকারীরা। যা গত কয়েক দশকে দেশটিতে অত্যতম। এই হত্যাকাণ্ডের জন্য দায়ী করা হচ্ছে, সেই ২০ বছর বয়সী উগ্রবাদী পুলিশের গুলিতে নিহত হয়।

হত্যাকারীর নাম কুজতিম ফেজুলাই। সে ছিল ইসলামিক স্টেটের আত্মঘাতী সন্ত্রাসী। ভিয়েনার রাস্তায় কালাশনিকভ রাইফেল হাতে এলোপাথাড়ি গুলি চালিয়ে চারজনকে হত্যা করেছে সে নিজেই।

অতীতে জেল খাটা আসামি ফেজুলাই মেসিডোনিয়া থেকে এসে অস্ট্রিয়ায় অভিবাসী হিসাবে বাস করছিল। পুলিশি তদন্তে উঠে এসেছে এমনই সব তথ্য। তার গুলিতে জখম হন অন্তত ১০ নিরীহ পথচারী।