সংবাদ শিরোনাম

টি-টোয়েন্টিতে ৫ হাজার রানের মাইলফলকে সাকিব | শেষপর্যন্ত ভেঙে গেলো অভিনেত্রী শবনম ফারিয়ার সংসার | মৌলবাদ-ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকুন: তথ্যমন্ত্রী | আরব সাগরে ভেঙে পড়ল ভারতীয় যুদ্ধবিমান | ধর্মপ্রাণ প্রধানমন্ত্রী যখন ক্ষমতায়, এ দেশে ইসলামবিরোধী কোনো কার্যক্রম হবে না: কাদের | কুড়িগ্রামে নারিকেল দেয়ার কথা বলে শিশু ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেপ্তার | প্রবাসী স্বামীকে ছেড়ে প্রেমিককে বিয়ে, কাবিনের 'টাকার চাপে' স্ট্রোক করে বৃদ্ধ বাবার মৃত্যু | রাস পূজায় অংশ নিতে দুবলার পথে তীর্থযাত্রী ও হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা | গোপালগঞ্জে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে নিহত ৪, আহত ১৯ | বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ঠেকানোর কোনও শক্তি নেই, প্রতিষ্ঠিত হবেই: হানিফ |

  • আজ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

করোনা জয় করে বাসায় ফিরলেন অপূর্ব

৪:৪১ অপরাহ্ন | বুধবার, নভেম্বর ১১, ২০২০ বিনোদন
অপূর্ব

বিনোদন ডেস্ক- টানা নয় দিন হাসপাতালে করোনার চিকিৎসা শেষে আজ বুধবার বাসায় ফিরেছেন টেলিভিশন নাটকের অভিনয়শিল্পী জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। দুদিন ধরে এই অভিনয়শিল্পীর শারীরিক অবস্থা যথেষ্ট ভালোর দিকে বলেই জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

আজ দুপুরের পর বাসায় ফিরেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের ডিউটি ম্যানেজার মো. বুলবুল ভূঁইয়া।

তিনি বলেন, অভিনেতা অপূর্বর শারীরিক অবস্থা দুদিন ধরেই ভালো। তারপরও চিকিৎসক আরেকটু পর্যবেক্ষণে রাখতে চেয়েছিলেন। আজ তিনি বাসায় যাওয়ার জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত। এখন আপাতত কোনো ধরনের সমস্যা নেই। তবে তাঁকে দুই সপ্তাহের মতো বিশ্রামে থাকতে হতে পারে।

এদিকে দুপুর ২টা ৩৫ মিনিটে নাট্যনির্মাতা মাহামুদুর রহমান হিমি তার ফেসবুকে দুটি ছবি পোস্ট করেন অপূর্বর সঙ্গে। এ ছবির ক্যাপশনে হিমি লিখেছেন, ‘করোনাজয়ী অপূর্ব ভাইয়া বাসার পথে।’

এছাড়া বুধবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অপূর্ব নিজেও তার সুস্থ হয়ে বাসায় ফেরার কথা জানান। তিনি লিখেছেন, ‘আল্লাহর দয়ায় আমি বাসায় ফিরছি। সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই, যারা নানাভাবে আমার পাশে ছিলেন। আপনাদের ভালোবাসার জোরেই আমার এই ফিরে আসা।’

এর আগে অপূর্ব করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৩ নভেম্বর রাত ১টার দিকে রাজধানীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলে ৪ নভেম্বর বিকেলে তাকে হাসপাতালটির নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র (আইসিইউ) থেকে সাধারণ কেবিনে স্থানান্তর করা হয়। কিন্তু জ্বর কিছুতেই কমছিল না। কাটছিল না দুশ্চিন্তাও। তাকে দেওয়া হয়েছে প্লাজমাও।